দ্রুত কমিটি গঠনের নির্দেশ বিএনপি হাইকমান্ডের

স্টাফ রিপোর্টার: মেয়াদোত্তীর্ণ থানা-পৌর-ইউনিয়নসহ সব পর্যায়ের কমিটি গঠনের কাজ দ্রুত শেষ করতে চায় বিএনপি। এজন্য সাংগঠনিক জেলাগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে হাইকমান্ড। ১৭ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া জেলা কমিটির সঙ্গে ধারাবাহিক বৈঠকে ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের দিয়ে এসব তৃণমূল কমিটি গঠনের তাগিদ দেওয়া হয়। পুনর্গঠনসহ সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে ইতোমধ্যে তিন জেলা শাখার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে।
সূত্র জানায়, জেলা কমিটি নিয়ে হতাশ বিএনপি। বিশেষ করে আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে বেশি চিন্তিত দলটি। তারা নির্ধারিত সময়ে থানা-উপজেলার সব পর্যায়ের কমিটি দিতে পারেনি। আবার যেসব জেলা তৃণমূল পুনর্গঠনের কাজে হাত দিয়েছে, তাদের বেশ কয়েকটির বিরুদ্ধেই নানা অভিযোগ পড়েছে কেন্দ্রে। বেশ কয়েকটিতে থানা-উপজেলা-পৌরসভার কমিটি গঠনে ত্যাগী ও পরীক্ষিতদের বাদ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মহামারির কারণে দল পুনর্গঠনের কাজ আমরা সেভাবে করতে পারিনি। তারপরও সীমিতভাবে কাজ করা হচ্ছে। মেয়াদোত্তীর্ণ মহানগর কমিটিগুলো পুনর্গঠনের কাজ চলছে। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ থানা-উপজেলা-ইউনিয়নসহ তৃণমূলের সব পর্যায়ের কমিটি দ্রুত শেষ করতে চাই। এজন্য জেলা নেতাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া আছে। বিএনপির দুজন ভাইস চেয়ারম্যান জানান, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তৃণমূলকে শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে জেলায় আহ্বায়ক কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত দেন। এই কমিটিকে তিন মাসের মেয়াদ দিলেও অনেক জেলা দুই বছরও পার করেছে। হামলা-মামলা, করোনাসহ নানা অজুহাতে কমিটির মেয়াদ বাড়িয়েছে। তারপরও কমিটি গঠনের কাজ শেষ করতে পারেনি। আর যারা কমিটি গঠনের কাজে হাত দিয়েছেন, অনেকের বিরুদ্ধে যোগ্য নেতাদের মূল্যায়ন না করার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সব বিষয়েই অবগত রয়েছেন। তৃণমূলের কমিটি গঠনে আর্থিক সুবিধা নিয়ে কাউকে পদ দেয়ার প্রমাণ পেলে সংশ্লিষ্ট নেতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনাও রয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More