নারায়নগঞ্জে ট্রেন বাস সংঘর্ষে নিহত ৩

স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জ শহরের ১ নম্বর রেলগেটের ফলপট্টি এলাকায় আনন্দ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে ট্রেনের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় বাসটিকে ট্রেন দুমড়ে-মুচড়ে হেনে হিঁচড়ে প্রায় ৪০ ফুট দূরত্বে নিয়ে গেছে। এতে বাসের নিচে চাপা পড়ে শিশুসহ তিনজন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও রেলওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আহত ও নিহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে এক শিশুর পায়ের খ-িত অংশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস। আহত শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে রাত সাড়ে ৯টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ মডেল থানার ওসি মো. শাহ জামান ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসন ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা ও পুলিশ জানায়, ঢাকা কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে একটি যাত্রীবাহী ট্রেন নারায়ণগঞ্জ রেল স্টেশনে যাচ্ছিল। এ সময় ১ নম্বর রেলগেট এলাকায় তীব্র যানজটের কারণে আনন্দ পরিবহনের একটি বাস রেলক্রসিংয়ের ওপর দাঁড়িয়ে পড়ে। রাস্তার দুই পাশে তীব্র যানজটের কারণে বাসটি সামনে বা পেছনে যেতে পারছিল না। যে কারণে ১ নম্বর রেলগেটের গেটম্যান গেট বেড়িয়ার ফেলতে পারছিল না। এ সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনটি সজোরে রেললাইনের ওপর দাঁড়িয়ে থাকা বাসটিকে ধাক্কা দেয়। এতে বাসটি দুমড়ে-মুড়চে গিয়ে ট্রেনের সঙ্গে টেনে হিচঁড়ে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ফুট দূরে নিয়ে যায়। তবে দ্রুত গতিতে ট্রেন আসতে দেখে বাসের চালক ও হেলাপারসহ অন্যরা দ্রুত নেমে পড়ে। বাসটি টেনে হিঁচড়ে নেয়ার সময় রাস্তার পাশে ফুটপাথে বসা হকার ও কয়েকজন পথচারী বাসের নিচে চাপা পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই একটি ডিম বিক্রেতা ও একজন পথচারী নিহত হয়। একটি শিশুর পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More