নৈতিক সমাজ নামে নতুন রাজনৈতিক দল

স্টাফ রিপোর্টার: সাবেক মেজর জেনারেল ও রাজনীতিবিদ আমসাআ আমিনকে সভাপতি করে ‘নৈতিক সমাজ’ নামে নতুন একটি রাজনৈতিক দল গঠনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। নৈতিক জাগরণ, রাজনৈতিক সংস্কার, সাংবিধানিক সুশাসন, ন্যায়বিচার, দুর্নীতি রোধসহ সমাজের নানা পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে এ দল গঠন করা হয়েছে। এজন্য ৫০ সদস্যের একটি আহ্বায়ক কমিটিও গঠন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে অনলাইন প্লাটফর্মে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি জুমের মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল ইসলাম। আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক বিচারপতি আব্দুস সালাম মামুন, সাবেক মেজর মুজিবুল হক, ইঞ্জিনিয়ার আতিকুর রহমান, তফিজউদ্দিনসহ নৈতিক সমাজের কয়েকজন নেতা। সংবাদ সম্মেলনে সভাপতি আমসাআ আমিন বলেন, ‘দেশে ষাটের দশকের সে ঐক্য এখন আর নেই। জাতি আজ বিভক্ত। দেশে দল অনেক আছে, কিন্তু বেশিরভাগই সমস্যার অংশ। ৫০ বছরে তারা সমাধানের অংশ হতে পারেননি। নতুন দল ও মত প্রয়োজন। আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আগামী তিন বছরের মধ্যে শক্তিশালী দল হিসেবে কাজ করতে চাই। যা সাধারণ মানুষের দল হবে।’
তিনি বলেন, সৎ, মেধাবী ও দূরদর্শী নেতৃত্বের খুবই প্রয়োজন। এসব প্রয়োজন পূরণ করতেই নতুন দল হিসেবে নৈতিক সমাজ গড়ে তোলা হচ্ছে। ২০২৩ সাল হবে নির্বাচনে প্রস্তুতির বছর।
ড. কামাল হোসেন নতুন দলটিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, জনগণ সৎ মানুষকে শ্রদ্ধা করে। নতুন প্রজন্মকে নৈতিকতা বোধের শিক্ষা দিতে হবে। নৈতিকতা ও সততাকে লালন করতে হবে। অসৎ মানুষ চিরস্থায়ীভাবে নেতৃত্ব দিতে পারেনি, পারবেও না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে নৈতিকতার মৃত্যু হয়েছে। সংখ্যালঘুদের ওপর একের পর এক অত্যাচার হচ্ছে। ক্ষমতাসীন দলের লোকেরাই এসব করেছে। নৈতিকতা বোধের অভাবে এসব হচ্ছে।
উল্লেখ্য, আমসাআ আমিন ২০০১ সালে কুড়িগ্রাম-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করেন। সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে তিনি গণফোরামে যোগ দিয়ে একই আসন থেকে নির্বাচন করেন। এবার নিজেই একটি রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিলেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More