পাঁচ জেলায় বজ্রপাতে ১০ জনের প্রাণহানি

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরে গতকাল বজ্রপাতের পৃথক ঘটনায় চারজন নিহত এবং চারজন আহত হয়েছেন। একই দিন বজ্রপাতে ময়মনসিংহ, মাগুরা, বাগেরহাট ও নাটোরে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। শেরপুর : গতকাল দুপুরে জেলা সদর, নকলা, ঝিনাইগাতী ও শ্রীবরদী উপজেলায় ঘটনাগুলো ঘটে। নিহতরা হলেন- মোস্তফা, আজিজুল হক, আকরাম হোসেন ও রাসেল মিয়া। পুলিশ জানায়, গতকাল দুপুরে সদর উপজেলার লছমনপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর দড়িপাড়া গ্রামের জমিতে কাজ করার সময় মোস্তফা এবং নকলার লাভা এলাকায় আজিজুল জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে নিহত হন। একই সময় শ্রীবরদী উপজেলার গোসাইপুর এলাকায় কিশোর আকরাম ও ঝিনাইগাতী মালিঝিকান্দায় রাসেল বজ্রপাতে মারা যায়। ময়মনসিংহ : ঈশ্বরগঞ্জ ও ফুলপুর উপজেলায় দুপুরে ধানক্ষেতে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হচ্ছেন- ঈশ্বরগঞ্জের রুবেল মিয়া ও ফুলপুরের দেলোয়ার হোসেন। ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল কাদির মিয়া ও ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মাগুরা : মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালী ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামে বৃষ্টির মধ্যে বিলে জাল দিয়ে মাছ ধরার সময় বজ্রপাতে আফজাল শেখ নামে এক জেলে নিহত হয়েছেন। বাগেরহাট : মোল্লাহাট উপজেলায় বৃষ্টির মেধ্যে চিংড়ি খামারে কাজ করার সময় বজ্রপাতে প্রকাশ বিশ্বাস নামে এক মৎস্য চাষির মৃত্যু হয়েছে। নাটোর : বড়াইগ্রামে বজ্রপাতে জাহিদ হাসান পাপ্পু নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বিকালে উপজেলার কায়েমকোলা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জাহিদ পাপ্পু উপজেলার ওই গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি আহম্মদপুর ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্র।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More