ঝিনাইদহের হরিশংকরপুরে আ.লীগ কর্মীকে হত্যার ঘটনায় পৃথক মামলা

পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে লুট হওয়া ছাগল গরু উদ্ধার
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের হরিশংকরপুর গ্রামের আলাপ শেখ নামে ৩নং ওয়ার্ড আ. লীগের সহসভাপতিকে কুপিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষরা। এরপর ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ওই এলাকায়। তাৎক্ষনিকভাবে ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান পিপিএম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তিনি ব্যাপক সংঘর্ষ, সহিংসতা ও লুটপাটের হাত থেকে রক্ষা করেন গ্রামটিকে। উদ্ধার করেন লুট হওয়া ১০টি গরু, ৫টি ছাগলসহ বিভিন্ন মালামাল। পরে ছাগল-গরুর মালিকদেরকে তা তিনি ফেরত দেয়ার ব্যবস্থা করেন। পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান পিপিএম বলেন, হত্যাকা-ের ঘটনায় ২৫ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। এছাড়া আসামি ধরতে যাওয়ার সময় পুলিশ এ্যাসাল্ট ঘটনায় আরও একটি মামলা হয়েছে। এলাকায় বর্তমানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। কোনো প্রকার আইনশৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকা- করলে তার বা তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে হরিশংকরপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর ইসলাম ও সহসভাপতি আলাপ শেখসহ বেশ কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী একটি বিয়ের দাওয়াত শেষে হরিশংরপুর বাজারে যাচ্ছিলেন। পথে গ্রামের মাঝে পৌঁছুলে ওৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষরা এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে আলাপ শেখ এবং নুর ইসলামকে গুরুতর জখম করে। গুরুতর আহত আলাপ শেখ ও নুর ইসলামকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক আলাপ শেখকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, বর্তমানে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন আছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More