বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কায় নিহত ১০

 

স্টাফ রিপোর্টার: বরিশালের উজিরপুরে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় ১শিশুসহ ১১জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ২৫ জন। ২৯ মে রোববার ভোর সাড়ে ৫টায় মহাসড়কের সানুহার ও বামরাইলের মধ্যবর্তী স্থানে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যমুনা লাইন ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৯০৪৬ পরিবহনটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সজোরে গাছের সাথে ধাক্কা লেগে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় পার্শ্ববর্তী স্থানীয়রা কিছু আহতদের টেনে বের করতে পারলেও অধিকাংশ আহত ও নিহত গাড়ীর মধ্যে আটকা পড়ে যায়।

উজিরপুর মডেল থানা পুলিশ, গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল সকাল সাড়ে ৬টা থেকে ১০টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ১ শিশুসহ ১০জনের মৃতদেহ এবং ২৫ জন আহতকে উদ্ধার করে উজিরপুর ও বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করে। বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে আহত অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়। বাকীদের উজিরপুর হাসপাতালে মৃত ঘোষণা করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আর্শাদ, হাইওয়ে পুলিশের ওসি শেখ বেল্লাল, উজিরপুর ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ আ. রাজ্জাক মোল্লা, গৌরনদীর ইনচার্জ বিপুল। তারা আরো জানান, যমুনা লাইন পরিবহনটি রাতে গাবতলী থেকে ভান্ডারিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। পথিমধ্যে উজিরপুরের সানুহার বামরাইলের মধ্যবর্তী আইয়ুব আলী হাওলাদারের বাড়ির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ঝালকাঠি জেলা সদরের নেওড়ী এলাকার মনির হোসেন হাওলাদারের ছেলে আরাফাত হোসেন হাওলাদার (৯), পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার উত্তর ভেচকি এলাকার কুদ্দুস আকনের ছেলে নজরুল ইসলাম আকন (৩৫), রাকিব আকনের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (২০), বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলার কাজিরবাদ এলাকার মোবারক আলী বেপারীর ছেলে হালিম মিয়া (৩১), ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা থানার সুতারকান্দা এলাকার মৃত আওলাদ আলীর ছেলে সেন্টু মোল্লা (৫০) ও বরিশালের উজিরপুর উপজেলার মুন্ডুপাশা গ্রামের মনোরঞ্জন শীলের ছেলে মাধব শীল (৪৫)।

ইতোমধ্যে লাশ সনাক্ত করেছে স্বজনরা। উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রাকীব হোসেন ও ডা. শারমিন জাহান স্বর্ণা জানান, সকাল থেকে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯জনকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে এবং আহত ৭জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কজনক। স্থানীয় শহিদুল ও জাহাঙ্গীর জানান, এই মহাসড়ক অত্যন্ত বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালানোর কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটে। ড্রাইভার ঘুমের ঘোরেও থাকতে পারে বলে তারা জানান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More