ব্রাজিলে বাংলাদেশিসহ আদম পাচার চক্রের আটজন গ্রেফতার

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ব্রাজিলের ফেডারেল পুলিশের সহায়তায় ২ ডিসেম্বর সে দেশের দুটি শহরে আদম পাচার দমন অভিযান চালানোর সময় যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন পুলিশ কয়েক বাংলাদেশিসহ আটজনকে গ্রেফতার করেছে। ‘অপারেশন ব্লাড টাইজ’ শীর্ষক এ অভিযানটি চালানো হয় সাউ পাওলো ও মিনাস জিরাইস শহরে। এর আগেও এ রকম অভিযানে বহুসংখ্যক বাংলাদেশিসহ আদম পাচার চক্রের সদস্য গ্রেফতার হয়। মার্কিন বিচার বিভাগের মুখপাত্র নিকোল নাভাস এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ‘চক্রটি বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে মোটা অর্থের বিনিময়ে প্রতিনিয়ত বিপুলসংখ্যক আদম বিভিন্ন দেশ হয়ে ব্রাজিলে জড়ো করছে। এসব লোকজনকে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকিয়ে দেয়ার চুক্তিতে ওরা অর্থ নেয় এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তাদের মারাত্মক হুমকির মুখে ঠেলে দেয়া হয়।’ বিচার বিভাগের প্রেস রিলিজে বলা হয়েছে- গত কয়েক বছরে মেক্সিকো সীমান্ত অতিক্রম করে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকে পড়ার সময় সীমান্তরক্ষীদের হাতে গ্রেফতার হওয়া লোকজনের বিবরণে সংঘবদ্ধ এ আদম পাচারকারী চক্রের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার কথা ভাবে যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট এবং অভিবাসন দফতরের পুলিশ। এ লক্ষ্যে তারা ব্রাজিল পুলিশের আন্তরিক সহায়তায় সাউ পাউলো ও মিনাস জিরাইসে তদন্ত চালিয়ে আদম পাচারকারী চক্রের অন্তত ২১টি ঘাঁটিতে এ অভিযান চালায়। পাচারকারী চক্রের আটজনকে গ্রেফতারের সময় উদ্ধার করা হয় বেশ কিছু অভিবাসীকে। তার প্রায় সবাই বাংলাদেশি। লিবিয়ার অধিবাসীও রয়েছেন কয়েকজন। অভিযানে ব্রাজিলের কয়েকজনকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা এ চক্রের সহযোগী। মার্কিন বিচার বিভাগের ক্রিমিনাল ডিভিশনের আদম পাচার বিরোধী সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল কেনেথ এ পোলাইট জুনিয়র এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক পার্টনারদের আন্তরিক সহায়তার মধ্যদিয়েই আমরা আদম পাচার নেটওয়ার্ক বিরোধী অভিযানে সক্ষম হচ্ছি। এ অভিযানে ব্রাজিলের ফেডারেল পুলিশের ভূমিকা অবশ্যই প্রশংসনীয়।’

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More