ভূমধ্যসাগর থেকে ১১৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

 

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টাকালে রোববার ১১৪ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী দেশটির দক্ষিণ উপকূল থেকে ৮৩ বাংলাদেশিসহ ১৭৮ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। তারা গত শুক্র ও শনিবার লিবিয়া থেকে যাত্রা করেছিলেন। তাদের বহনকারী নৌকাটি সাগরে উল্টে যায়। এ ছাড়া একই দিন লিবিয়ার কোস্টগার্ড ৩১ বাংলাদেশিসহ ২৭১ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে।
তিউনিসিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এদিন উদ্ধার হওয়া অভিবাসীরা বাংলাদেশ, তিউনিসিয়া, সিরিয়া, মিসর, নাইজেরিয়া, মালি ও ইথিওপিয়ার নাগরিক। এ ছাড়া মৃত দুই অভিবাসীকেও নৌবাহিনী উদ্ধার করেছে। তবে তারা কোন দেশের নাগরিক, তা জানা যায়নি। অভিবাসীদের সবাই লিবিয়ার জুয়ারা বন্দর থেকে নৌকায় ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড দেশটির উপকূল থেকে ভূমধ্যসাগরে ভাসমান একটি বিকল নৌযান থেকে ২৬৪ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে। লিবিয়া থেকে তারা ইতালির উদ্দেশে যাত্রা করেছিলেন।
তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড মে ও জুন মাসে পাঁচ দফায় ভূমধ্যসাগর থেকে ৭০৭ জন বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২১ জুন পর্যন্ত ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে বিভিন্ন দেশের ১৯ হাজার ৬১ জন ইতালি পৌঁছেছেন। লিবিয়া থেকে ইতালি পৌঁছানো নাগরিকদের তালিকার শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। একই সময় অবৈধভাবে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টাকালে বিভিন্ন দেশের ৮১০ জন অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More