মেহেরপুরে প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণকালে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

প্রতিবন্ধীরা আমাদের বোঝা নয় তাদেরকে সম্পদে পরিণত করতে হবে

মেহেরপুর অফিস: প্রতিবন্ধীরা আমাদের বোঝা নয়, তাদেরকে সম্মান ও সহমর্মিতার চোখে দেখতে হবে। শুধু তাই না; প্রতিবন্ধীদের সম্পদে পরিণত করতে হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। গতকাল বৃহস্পতিবার মেহেরপুরে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রদত্ত হুইল চেয়ার ও হিয়ারিং এইড বিনামূল্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাঝে বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। মেহেরপুর জেলা প্রশাসন এবং প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদেরকে বোঝা না ভেবে সম্পদে পরিণত করতে হবে। তারা যদি স্বাবলম্বী হতে পারে তাহলে পরিবার ও সমাজের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। এজন্য তাদেরকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে হবে। তাদের উপার্জনের সুব্যবস্থা করে দিতে হবে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এ লক্ষ্যে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, অনেক সময় পরিবেশ দূষণের কারণে প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হয়। সেজন্য পরিবেশ দূষণের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। যত্রতত্র গড়ে ওঠা ইটভাটাগুলো পরিবেশ দূষণের অন্যতম কারণ। আমাদেরকে পরিবেশবান্ধব ইটভাটা স্থাপন করতে হবে। এগুলো যাতে লোকালয় থেকে দূরে স্থাপন করা হয় তা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, গর্ভবতী মায়ের পুষ্টির অভাবেও প্রতিবন্ধী শিশু জন্ম নিতে পারে। তাই, নারীরা যাতে পুষ্টিকর খাবার খায়, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, মেহেরপুরের মানুষ যাতে উন্নত জীবনযাপন করতে পারে সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মডেল হিসেবে মেহেরপুরকে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। এজন্য সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।

জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে হুইল চেয়ার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী। সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুজন কুমার দাসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডাক্তার মো. নাসির উদ্দিন, পিপি পল্লব ভট্টাচার্য, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মধ্যে ইমরান হোসেন প্রমুখ। এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা তুলসি কুমার পাল। পরে সেখানে ১০ জনের মধ্যে হুইল চেয়ার ও হেয়ারিং এইড বিতরণ করা হয়।

এ সময় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তুষার কান্তি পাল, জেলা সমাজসেবা অধিদফতরের উপ-পরিচালক কাজী কাদের মোহাম্মদ ফজলে রাব্বী, শহর সমাজসেবা সমন্বয় পরিষদের সভাপতি আমিনুল ইসলাম খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More