যুদ্ধের প্রভাবেই গ্যাসের দাম বাড়ছে : অর্থমন্ত্রী

 

স্টাফ রিপোর্টার: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবেই গ্যাসের দাম বাড়ছে। যুদ্ধ হবে সেটা কি কখনো ভেবেছি আমরা। অর্থনীতিতে নিশ্চয়তা ও অনিশ্চয়তা আছে। চ্যালেঞ্জিং এরিয়াগুলো যখন যেটা সামনে আসবে তখন কীভাবে তা মোকাবিলা করবো সে ধরনের পথ তৈরি করতে হবে। সরকারি ক্রয় ও অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে বুধবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন। ওই বৈঠকে অর্থমন্ত্রী বলেন, আগামী বাজেটে ব্যবসায়ীরা লুজার (ক্ষতিগ্রস্ত) হবেন না। সবাই জিতবেন। ব্যবসায়ীদের আরও সহায়তা ও সুবিধা দেয়া হবে। এটি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কাজ হচ্ছে। ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত বৈঠক দুটিতে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী। সেখানে ক্রয় সংক্রান্ত বৈঠকে গম আমদানিসহ ১১টি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। এতে ব্যয় ধরা হয় ৭ হাজার ৫৭২ কোটি টাকা।

কুইক রেন্টাল বিষয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আগে বিদ্যুৎ পাই বা না পাই আমাদের ম‚ল্য পরিশোধ করতে হতো। আমরা এখন বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারলেও সরবরাহসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করা দরকার। আগামী এক বছরের মধ্যে তিন হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাবো। যখন নতুন করে এই বিদ্যুৎ পাবো তখন এগুলোকে (কুইক রেন্টাল) বিলুপ্ত করতে পারবো। কুইক রেন্টাল আগের চেয়ে এখন ভিন্ন। কারণ এগুলোতে যতটুকু ব্যবহার করব তার ম‚ল্যই দিতে হবে। অর্থমন্ত্রী বলেন, এগুলোর (কুইক রেন্টাল) মেয়াদ বাড়িয়েছি বুঝেশুনেই, আগামী দুই বছরের জন্য। এক সময় নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে পারবো। আজ কুইক রেন্টালের প্রস্তাবটি অনুমোদন দিয়েছি একটি শর্তে, নো ইলেকট্রিসিটি, নো পেমেন্ট।

এক প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন-ভারত, দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশেই ম‚ল্যস্ফীতি বাড়ছে। ম‚ল্যস্ফীতি নিয়ে সিপিডির ম‚ল্যায়ন প্রসঙ্গ এলে অর্থমন্ত্রী বলেন, যখন দেশে ম‚ল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৬ শতাংশ ছিল ওই সময় ডলারের ম‚ল্য কমাতে পরামর্শ দিয়েছে এ সংস্থাটি। তাদের পরামর্শ গ্রহণ করলে আজ আপনারা কোথায় থাকতেন ভেবে দেখুন। সিপিডি শুধু দেশের অর্থনীতি বুঝে, অন্য কেউ বুঝে না এটি ভাবা ঠিক নয়। তবে দেশের অর্থনীতি উন্নয়নে এ সংস্থার ভ‚মিকা আছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More