রেকর্ডসংখ্যক ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে : মৃত্যু ২

 

স্টাফ রিপোর্টার: দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আসছে না ডেঙ্গু। প্রতিনিয়ত আক্রান্তে নতুন নতুন রেকর্ড গড়ছে। চলতি মাসে দৈনিক গড়ে ৬০০ জনের বেশি মানুষ এই ভাইরাসজনিত জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অনেকেই আক্রান্ত হয়ে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। কর্তৃপক্ষ বলছে, এবার ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবের অন্যতম কারণ জলবায়ু ও আবহাওয়া পরিবর্তন। অন্যদিকে কীটতত্ত্ববিদরা বলছেন, যেভাবে কাজ চলছে তাতে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আসবে না। ফলে মশার উপদ্রব নভেম্বরেও থাকছে। জাতীয় কর্মকৌশল তৈরি করে এলাকাভিত্তিক মশা নিধন কর্মসূচিতে জোর দিচ্ছেন তারা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯২২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যা চলতি বছরের সর্বোচ্চ। ১৮ অক্টোবর সবচেয়ে বেশি মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছিলো। সেদিন ডেঙ্গু নিয়ে ৯০০ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়। এ নিয়ে চলতি মৌসুমে ডেঙ্গু রোগী ৩০ হাজার ছাড়ালো। এর মধ্যে ১১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১০ মাসের মধ্যে এবার নভেম্বরে সবচেয়ে বেশি রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। চলতি মাসের ২২ দিনে ১৩ হাজার ৯৩৭ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এ সময় মারা গেছেন ৫৭ জন। শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরও জানিয়েছে, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৫২০ জন ঢাকার বাসিন্দা। বাকি ৪০২ জন দেশের অন্যান্য জেলার। এছাড়া বর্তমানে ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ২ হাজার ৩২৮ জন এবং ঢাকার বাইরে ১ হাজার ৭৬ জন ভর্তি রয়েছেন। চলতি মৌসুমে ৩০ হাজার ২৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ২১ হাজার ৪২৪ জন ঢাকার। বাকি আট হাজার ৬০৫ জন দেশের অন্যান্য জেলার বাসিন্দা। এর মধ্যে ২৬ হাজার ৫১৩ জন সুস্থ হন। এ ছাড়া চলতি বছরে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ১১২ জন মারা গেছেন।

এদিকে রাজধানীর একটি অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, সরকার ডেঙ্গু মোকাবিলায় কাজ করছে। এ বছর অন্য সময়ের তুলনায় থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের জন্যই এ বছর এ সময়ে ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে ডেঙ্গুর অবস্থা বেদনাদায়ক। কিন্তু সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইনসহ অনেক দেশের তুলনায় এখনো অনেক ভালো। ইতোমধ্যে মেয়রদেরকে চিরুনি অভিযানসহ আরও নিবিড়ভাবে কাজ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More