সংবাদপত্রের মূল্য ২৫ জুলাই থেকে ২ টাকা বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার: দৈনিক পত্রিকার দাম ন্যূনতম ২ টাকা করে বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংবাদপত্রের মালিকদের সংগঠন নিউজপেপার্স ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব)। এই সিদ্ধান্তের ফলে যে পত্রিকার মূল্য এখন ১০ টাকা, সেটার দাম হবে ১২ টাকা। আর ৫ টাকা মূল্যের পত্রিকার দাম হবে ৭ টাকা। ২৫ জুলাই থেকে নোয়াবের সদস্য এমন সব পত্রিকার জন্য নেয়া এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। বৃহস্পতিবার নোয়াবের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সংবাদপত্রশিল্প এক নজিরবিহীন সংকটের মধ্যে রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দৈনিক সংবাদপত্রের মূল্য বৃদ্ধি করতে তারা বাধ্য হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, সারা বিশ্বেই সংবাদপত্রশিল্প নানা সংকটের মধ্যে অতিবাহিত হচ্ছিল। বিজ্ঞাপন আয় এবং প্রচারসংখ্যা কমে আসছিল। বাংলাদেশেও এর ব্যতিক্রম ছিল না। সংবাদপত্রের সেই সংকটকে ২০২০ সালের করোনা মহামারি আরও ঘনীভূত করেছে। কিন্তু পাঠকদের কথা বিবেচনা করে আমরা পত্রিকার মূল্য বৃদ্ধি করিনি। সংবাদপত্র ছাপার ব্যয় অনেক বেড়েছে। এর প্রধান কাঁচামাল নিউজপ্রিন্টের দাম বছরের মধ্যভাগ থেকে বাড়ছিল। গত বছরের প্রথমার্ধে যে দাম ছিল, তা গত কয়েক মাসে দ্বিগুণ হয়েছে। আবার পত্রিকা ছাপার জন্য কালি, প্লেট ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যও বেড়েছে। উপরন্তু বেড়েছে ডলারের বিনিময় হারও। সেই সঙ্গে পরিবহণ ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় সব মিলিয়ে সংবাদপত্রের ব্যয় দ্বিগুণ হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, নোয়াবের পক্ষ থেকে কয়েক বছর ধরে সংবাদপত্রশিল্পকে সহায়তা করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করা হলেও তাতে আশানুরূপ সাড়া পাওয়া যায়নি। এমনকি করোনা মহামারির সময় সব শিল্পকে প্রণোদনা দেয়া হলেও সংবাদপত্রশিল্প কোনো সহায়তা পায়নি। বরাবরের মতো এবারও বাজেটে করপোরেট কর, আমদানি শুল্ক, ভ্যাটসহ অন্যান্য কর অব্যাহত রাখা হয়েছে। এসব মিলিয়ে সংবাদপত্রশিল্প এক নজিরবিহীন সংকটের মধ্যে রয়েছে।

বিবৃতিতে নোয়াব বলে, আমরা সব সময় মনে রাখি যে, পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীরাই আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি। আমরা সেরা সংবাদপত্র আপনাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। আমাদের সব পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছি।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More