সপ্তাহে হাসপাতালে ডেঙ্গি রোগী ৩৪৩১ : মৃত্যু ৯ জনের

স্টাফ রিপোর্টার: দেশে ঋতু পরিবর্তনজনিত কারণে সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা। এই ঊর্ধ্বমুখী ধারায় এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গি জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। এক সপ্তাহে ৩ হাজার ৪৩১ জন ডেঙ্গি রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ সময় ডেঙ্গিতে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গি জ্বর নিয়ে ২৪০ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ডেঙ্গি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে সারা দেশে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গি রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২৮২ জনে। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৪ জনে পৌঁছেছে। প্রতিদিনের মতো শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত ডেঙ্গি বিষয়ক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় (বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের ঢাকার বাসিন্দা ১৯২ এবং ঢাকার বাইরে ৪৮ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি বছরে ১ জানুয়ারি থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সর্বমোট ১৯ হাজার ৫২৩ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১৭ হাজার ১৭৭ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১৪ হাজার ৭৩৮ জন এবং ঢাকার বাইরে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ৭৮৫ জন। ঢাকায় ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা মোট ১২ হাজার ৯৮১ জন এবং ঢাকার বাইরে ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা মোট ৪ হাজার ১৯৬ জন। মাসভিত্তিক রোগী ভর্তি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, এ বছর সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গি রোগী ভর্তি হয়েছে সেপ্টেম্বরে। ওই মাসে ৯ হাজার ৯১১ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অর্থাৎ দৈনিক গড়ে ৩৩০ জন ডেঙ্গি জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। গত মাসে ডেঙ্গিতে ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। দিনে একজনের বেশি রোগী মারা গেছেন। এছাড়া আগস্টে ৩ হাজার ৫২১ জন, জুলাইয়ে ১ হাজার ৫৭১ জন ভর্তি হয়েছিলেন। জানুয়ারিতে ১২৬ জন, ফেব্রুয়ারিতে ২০ জন, মার্চে ২০ জন, এপ্রিলে ২৩ জন, মে মাসে ১৬৩ জন এবং জুনে ৭৩৭ জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদিকে চলতি অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩ হাজার ৪৩১ জন। গড় হিসাবে দৈনিক ৪৯০ জন ডেঙ্গি রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। দেশে ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গিতে মোট ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ বছর ২১ জুন ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। চলতি মাসে ডেঙ্গিতে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রসঙ্গত, দেশে বর্ষাকাল এলেই ডেঙ্গি রোগের জীবাণুবাহী এডিস মশার উৎপাত বাড়ে। এ সময় এই মশার কামড়ে আক্রান্ত হয়ে ডেঙ্গি রোগীর সংখ্যাও বাড়ে। এর আগে ২০১৯ সালে ১ লাখ ১ হাজার ৩৫৪ জন মানুষ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। বাংলাদেশে এ পর্যন্ত এটাই এক বছরে সর্বোচ্চ ভর্তি রোগী। সেবছর মৃত্যু হয়েছিল ১৬৪ জনের। ২০১৮ সালে ১০ হাজার ১৪৮ জন ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়, মৃত্যু হয় ২৬ জনের। ২০২০ সালে করোনা মহামারিকালে ডেঙ্গির সংক্রমণ তেমন একটা দেখা না গেলেও ২০২১ সালে সারা দেশে আক্রান্ত হন ২৮ হাজার ৪২৯ জন। একই বছর দেশব্যাপী ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে ১০৫ জন মারা যান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More