সম্প্রতির বাধনে আবদ্ধ হয়ে উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে মতবিনিময়কালে এমপি টগর

দর্শনা অফিস: “ধর্ম যার যার, উৎসব সবার” এ প্রতিবাদ্যকে বুকে ধারণ করে শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব পালনের লক্ষ্যে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। চুয়াডাঙ্গা-২ নির্বাচনী এলাকার ৫৩টি পূজা মন্দিরের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে মতবিনিময় করেছেন এমপি আলী আজগার টগর। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে দর্শনা পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় সবকটি মন্দিরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের আয়োজক, এমপি আলী আজগার টগর প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন, দারিদ্র, ক্ষুধা, নিরক্ষর ও সাম্প্রদায়িক মুক্ত সোনার বাংলাদেশের। আজ বঙ্গবন্ধু আমাদের মধ্যে না থাকলেও তার রেখে যাওয়া স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়েছে। তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পূরণ করেছেন তার লালিত স্বপ্ন। আমরা এ দেশে হিন্দু, মুসলমান, খ্রিস্টান, বৌদ্ধসহ সকল ধর্মাবলম্বী ভাই-ভাই। এ সরকারের শাসনামলে সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উৎসব পালন করে আসছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। আমাদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ, সোহার্দপূর্ণ মনোভাব, আন্তরিকতা ও বন্ধুত্বের কোনো ঘাটতি নেই। ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে দেশ উন্নয়নে দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। তাই আসুন সম্প্রতির বাধনে আবদ্ধ হয়ে চলমান উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে বজায় রাখতে সমাজ, দেশ, জাতি ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি। সভার সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আ.লীগের সহসভাপতি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ বাহার। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক, দামুড়হুদা উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু, দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান, জীবননগর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি গোলাম মর্তূজা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল, জীবননগর পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউপি চেয়ারম্যান এসএএম জাকারিয়া আলম, কার্পাসডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভূট্রো, কুড়–লগাছি ইউপি চেয়ারম্যান শাহ এনামুল করিম ইনু, মনোহারপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন খান, আন্দলবাড়িয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মুক্তার, হাসাদাহ ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হক বিশ্বাস, বাকা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের প্রধান, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তাহাজ্জত হোসেন ও আব্দুল হান্নান। অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন তিতুদহ ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি শুকুর আলী, আ.লীগ নেতা হামিদুল্লাহ, মোবারক হোসেন, নজরুল ইসলাম, শাহিনুর মাস্টার, জসিম উদ্দিন, আব্দুল মালেক, শফিউল কবির ইউসুফ, দামুড়হুদা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি উত্তম রঞ্জন দেবনাথ, সহসভাপতি দিপেন ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক অনন্ত সান্তারা মঙ্গল, সাংগঠনিক সম্পাদক বিপুল কুমার দাস, জীবননগর উপজেলা সভাপতি বিজয় হালদার, সাধারণ সম্পাদক বসুদেব রক্ষিত, হিন্দু সম্প্রদায় নেতা সমির কুমার সরকার, দিপেন ঘোষ, সুজন হালদার, কাত্তিক সাহা প্রমুখ। দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান ছোট, সহসভাপতি সোলায়মান কবির, দামুড়হুদা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম মল্লি¬ক, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন তপু, ছাত্রলীগনেতা লোমান, আলামিন, প্রভাত, রায়হান, অপু সরকার, মোহাম্মদ, মিল¬াত প্রমুখ। সভা শেষে নির্বাচনী এলাকার ৫৩টি পূজা মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের হাতে আর্থিক সহায়তা ও বস্ত্র বিতরণ করেন এমপি আলী আজগার টগর।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More