সরকারি-বেসরকারি সকল অফিসে ধূমপানমুক্ত ঘোষণা করতে হবে

চুয়াডাঙ্গা জেলা তামাক আইন বাস্তবায়ন টাস্কফোর্স কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেছেন, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি-বেসরকারি অফিসে ধূমপানমুক্ত ঘোষণা করে সাইনবোর্ড টানিয়ে দিতে হবে। ১৮ বছরের নীচে কারও কাছে সিগারেট বিক্রি করতে পারবেন না। করলে আইনের আওতায় আনতে পারবো। গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জেলা তামাক আইন বাস্তবায়ন টাস্কফোর্স কমিটির ত্রৈমাসিক সভায় জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার এসব কথা বলেছেন।

জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জেলা তামাক আইন বাস্তবায়ন টাস্কফোর্স কমিটির ত্রৈমাসিক সভায় সদস্য সচিব-সিভিল সার্জন ডা. এএসএম মারুফ হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. আবু তারেক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সাজিয়া আফরীন এবং কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার আরও বলেন, অফিসের সামনে সিগারেট খাচ্ছে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে না। আগে বাসে চড়ে গেলে মানুষ সিগারেট খেতো। এখন কিন্তু সেটা চলে না। ট্রেনে সিগারেট খাওয়ার কথা চিন্তায় করে না। একটা জিনিস শুরু করলে আস্তে আস্তে বাস্তবায়ন হয়। এজন্য মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে হবে। তামাকজাতে কোনো লাভ নেই, ক্ষতিই হয়। উপজেলা পর্যায়ের অফিসগুলোতে বিলবোর্ড তৈরী করে লাগাতে হবে। মুজিববর্ষের সেøাগান রাখতে হবে। তথ্য অধিদফতর ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগকে তামাকের বিরুদ্ধে প্রচারণা বাড়াতে হবে। খুচরা বিক্রি বন্ধ করতে হবে। সিগারেটের কোনো বিজ্ঞাপন থাকতে পারবে না। কারও নজরে পড়লে নিশ্চিত বন্ধ করতে হবে। বেসরকারি সংগঠনদের  (এনজিও) প্রচার-প্রচারণা বাড়ানোর তাগিদ দেয়া হবে। ২০৪০ সালে দেশকে তামাকমুক্ত ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়ন করতে পারলে তামাক নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হবো।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More