সুষ্ঠু পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার অভাবে জীবননগর পৌরবাসী চরম দুর্ভোগে

জীবননগর ব্যুরো: সুষ্ঠু পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় জীবননগর পৌরবাসী চরম দুর্ভোগে পড়েছে। বৃষ্টির পানি নিষ্কাশিত না হওয়ায় পৌরষভার নিচু এলাকার নাগরিকদের কাঁদা-পানিতে নাকাল হতে হচ্ছে। গত কয়েক দিনের মুষলধারের বৃষ্টিতে জীবননগর উপজেলা জুড়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। নিচু এলাকায় বসবাসরত মানুষ জলাবদ্ধতার কারণে একপ্রকার প্রায় গৃহবন্দী। গত এক সপ্তাহেও পানি নিস্কাশিত না হওয়ায় এ দুর্ভোগ বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ছাড়াও জলাবদ্ধতার কারণে বিনষ্ট হতে বসেছে বিজিবি ক্যাম্পের পিছনের বিস্তৃর্ণ এলাকার ধান। বিজিবি ক্যাম্পের সামনে অবস্থিত মিনি পুকুরের বাঁধ অপসারণ না করায় কয়েক লাখ টাকার ধান বিনষ্ট হওয়ায় আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
সূত্র জানায়, গত কয়েক দিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে এ উপজেলায়। বিশেষ করে গত মঙ্গলবার গভীর রাতের ভারী বর্ষণের কারণে উপজেলা জুড়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। জীবননগর পৌর শহরের অবস্থা আরও নাজুক। প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের নিচু এলাকা হাঁটু পানির নিচে। অনেকের বাড়ির ভেতরে পানি উঠে গেছে। ড্রেনগুলো উপচে পড়েছে। পানি নিষ্কাষিত হতে না পারায় স্থায়ী জলাবদ্ধতায় রুপ নিয়েছে। ফলে ময়লা কাঁদা পানি পাড়ি দিয়ে বাড়ি যেতে হচ্ছে।পৌস্টঅফিসপাড়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী জানান, পৌরসভার বিজিবি ক্যাম্পের পিছনের জমির ধান ক্ষেত পানির নিচে তলিয়ে রয়েছে। বিজিবি ক্যাম্পের মিনি পুকুরটির দু মুখের বাঁধটি খুলে না দেওয়াতে কয়েক শ’ বিঘা জমির ধান বিনষ্ট হওয়ার উপক্রম দেখা দিয়েছে।
জীবননগর পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মিজানুর রহমান জানান, তার বাড়িতে যাতয়াতকারী রাস্তাটি হাঁটু পানি উঠে রয়েছে। ফলে তাদেরকে ময়লা কাঁদা-পানি পাড়ি দিয়ে ভেতরে যেতে হচ্ছি। তিনি জানান, সুষ্ঠু পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি অবিলম্বে জীবননগর পৌলসভার নাগরিকদের সৃষ্ট এ জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি দিতে পৌর পিতার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More