স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালুর সিদ্ধান্ত বিএনপির

স্টাফ রিপোর্টার: প্রায় ছয় মাসের মাথায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাংগঠনিক কার্যক্রম পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। শনিবার স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে বিএনপি’র সাংগঠনিক কার্যক্রম/সাংগঠনিক গঠন ও পুণর্গঠন প্রক্রিয়া গত ১৫ মার্চ থেকে স্থগিত করেছিলো দলটি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল এই বৈঠকে নিজ নিজ বাসা থেকে অংশ নেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

বৈঠক শেষে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানান, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে বিএনপি’র সাংগঠনিক কার্যক্রম/সাংগঠনিক গঠন ও পূণর্গঠন প্রক্রিয়া গত ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছিলো। বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী এখনো বিরাজমান। বাস্তবতার নিরিখে দলীয় কার্যক্রমের অগ্রগতির জন্য সাংগঠনিক কার্যক্রম/সাংগঠনিক গঠন ও পূণর্গঠন পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

দেশব্যাপী দলের নেতাকর্মীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে ডেইলি স্টারে ‘আফটার থার্টি ইয়ার্স অব অটোক্রেসিস ডিমাইস, ডেমোক্রেসি স্টিল রিমেইনস এ ডিস্ট্যান্ট ড্রিম’ শিরোনামে মাহফুজ আনামের নিবন্ধ প্রকাশিত হয়। বিএনপির  চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সম্পর্কে নিবন্ধে যা উল্লেখ করা হয়েছে তা নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এরই মধ্যে ওই প্রবন্ধে খালেদা জিয়াকে নিয়ে যা বলা হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। এরপরও বিএনপি থেকে ওই নিবন্ধের বিষয়ে একটি লিখিত প্রতিবাদলিপি পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More