দেশীয় প্রজাতির মাছের বংশবৃদ্ধির জন্য ১৮ বছর ধরে নদীতে মাছের পোনা ছেড়ে আসছেন আশরাফুল আলম

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: ফারাক্কার বিরূপ প্রভাবে আমাদের বৃহত্তর অঞ্চলের নদ-নদী শুকিয়ে যাচ্ছে। প্রধান নদীগুলো ব্যতিত শাখা নদ-নদীগুলোতে বছরের মাত্র কয়েক মাস পানি থাকে। পানি শূন্যতার ফলে খাল-বিল ভরাট ও দখল হয়ে গেছে। ফসলি জমিতে কীটনাশকের যথেচ্ছা ব্যবহার বেড়েই চলেছে। ফলে দেশীয় মাছের আকাল ক্রমেই প্রকটতর হচ্ছে। ইতোমধ্যে অনেক প্রজাতির দেশীয় মাছ বিলুপ্ত হয়ে গেছে। বিলুপ্তের উপক্রম শতাধিক প্রজাতির মাছ। ২৬০ প্রজাতির মাছের মধ্যে গত ২ দশকে প্রায় ৬৫ প্রজাতির মাছ পুরোপুরি বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তাছাড়া বর্তমানে বিদেশি হাইব্রীড জাতের মাছ উৎপাদনে মাছ চাষিরা অধিক ঝুঁকে পড়ার কারণে দেশীয় প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব সঙ্কট তীব্রতর হয়েছে। অধিক মুনাফার লোভে পুকুর-জলাশয়ে এখন আর দেশি প্রজাতির মাছ চাষ করা হচ্ছে না।
এমন বেদনাদায়ক পরিস্থিতিতে দেশীয় প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব রক্ষায় এগিয়ে এসেছেন চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গার তরুণ ব্যবসায়ী আশরাফুল আলম। ২০০২ সাল থেকে তিনি আলমডাঙ্গার বিভিন্ন মৃতপ্রায় নদ-নদীতে দেশীয় প্রজাতির মাছের পোনা অবমুক্ত করে আসছেন। নিজ অর্থায়নেই তিনি প্রতি বছর এ মহৎ কাজটি করে থাকেন। গতকাল ১৫ আগস্ট তিনি আলমডাঙ্গা কুমার নদে দেশীয় প্রজাতির মাছের পোনা ছাড়েন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More