অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ

প্রথম প্রহরে বিনম্র শ্রদ্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণ

স্টাফ রিপোর্টার: অমর একুশে ফেব্রুয়ারি আজ। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। মায়ের ভাষার দাবিতে বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমায় ভাস্বর গৌরবময় একদিন। বাঙালির আত্মগৌরবের স্মারক অমর একুশের এদিনে জাতি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে মহান ভাষা শহীদদের, যাদের আত্মত্যাগে আমরা পেয়েছিলাম মায়ের ভাষায় কথা বলার অধিকার। যাদের ত্যাগে বাংলা বিশ্ব আসনে পেয়েছে গৌরবের উচ্চাসন। একুশের প্রথম প্রহর থেকে বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হচ্ছে মহান ভাষা শহীদদের। দিবসটি উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। দিবসটি উপলক্ষে বেতার ও টেলিভিশনগুলো বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করছে। জাতীয় দৈনিকগুলো প্রকাশ করেছে বিশেষ ক্রোড়পত্র। এদিকে গতকাল এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৪ জন বিশিষ্ট নাগরিকের হাতে একুশে পদক তুলে দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে পদক তুলে দেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন। এবারও ভিন্ন এক পরিবেশে উদ্যাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। মহামারি করোনার কারণে এবার শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানোর কর্মসূচি পালিত হবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। সংগঠনের পক্ষ থেকে একসঙ্গে ৫ জন শ্রদ্ধা জানাতে ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন। একইভাবে সারা দেশে একুশের কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলা হয়েছে। মায়ের ভাষার মর্যাদা রক্ষায় ১৯৫২-এ জীবন দিয়েছিলেন সালাম, বরকত, জব্বার, রফিক, শফিউল্লাহসহ নাম না জানা অনেকে। তাদের রক্তের বিনিময়েই আজকে মুখে মুখে বাংলা ভাষা। বাংলায় রচিত হচ্ছে হাজারো গান, কবিতা, নাটক, উপন্যাস আর অজস্র কথামালা। আজকের দিনটি শুধু সেই বীর ভাষাসৈনিকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর, যারা ভাষার জন্য অকাতরে নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়েছিলেন। আজকের দিনটি কেবল বাংলাদেশে নয়, বিশ্বের সব প্রান্তে পালিত হচ্ছে বীরের রক্তস্রোত আর মায়ের অশ্রুভেজা অমর একুশে। বাঙালির রক্তস্নাত ভাষা আন্দোলনের স্বীকৃতি দিয়ে জাতিসংঘের সহযোগী সংস্থা ইউনেস্কো ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করে। এরপর থেকেই যথাযোগ্য মর্যাদায় সারা বিশ্বে একযোগে পালিত হয়ে আসছে দিনটি। আন্তর্জাতিকভাবেও নানা আয়োজনে পালিত হবে দিবসটি।
একুশের প্রথম প্রহরে রোববার দিনগত রাত ১২টা ১ মিনিটে চুয়াডাঙ্গার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সরকারি কলেজ চত্বরে জেলা প্রশাসনের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খানসহ কর্মকতারা। এরপর জেলা পুলিশের পক্ষে পুলিশ সুপার মো. জাহিদুল ইসলাম। জেলা জজশিপের পক্ষে বিচারকবৃন্দ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, জেলা পরিষদ, পৌর পরিষদ, স্বাস্থ্য বিভাগ, সদর উপজেলা পরিষদ, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ, আদর্শ সরকারি মহিলা কলেজ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ড, জেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, গণপূর্ত বিভাগ, এলজিইডি, পানি উন্নয়ন বোর্ড, ওজোপাডিকো লিমিটেড, টিটিসি, টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, চুয়াডাঙ্গা পৌর ডিগ্রি কলেজ, আওয়ামী যুবলীগ, ফার্স্ট ক্যাপিটাল ইউনিভার্সিটি, জেলা মৎস্য অফিস, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদল, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, জাতীয় পার্টি, চুয়ডাঙ্গা প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা ইউনিট, দৈনিক মাথাভাঙ্গা, দৈনিক সময়ের সমীকরণ, দৈনিক পশ্চিমাঞ্চল, দৈনিক আকাশ খবর, বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিট, চুয়াডাঙ্গা ডায়বেটিক সমিতি, পুজা উদযাপন কমিটি, জামান গ্রুপ, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্সপার্টি, খাদ্য বিভাগ, জেলা লেখকসংঘ, সিআইডি, জেলা পরিসংখ্যান ব্যুরো, বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ড কাউন্সিল, জাতীয় শ্রমিক লীগ, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন, কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট, বিএসডিসি শ্রমিক কর্মচারী লীগ, জেলা আইনজীবী সমিতি, জেলা প্রাণিসম্পদ অধিদফতর, পল্লী বিদ্যুত সমিতি, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্যপরিষদ, রেল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠনের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের আয়োজনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রাত ১০টায় চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি সরদার আল-আমিন। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত দিয়ে শুরু হওয়া আলোচনাসভায় ভাষা শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। ভাষা শহীদদের স্মরণ করে আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাজিব হাসান কচি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি নাজমুল হক স্বপন, সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফ, সহ-সভাপতি শেখ সেলিম, প্রথম আলোর সাংবাদিক শাহ আলম সনি, সিনিয়র সাংবাদিক এম এম আলাউদ্দিন, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের প্রচার প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আহাদ আলী মোল্লা, একে টেলিভিশনের চেয়ারম্যান চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের দাতা সদস্য খালিদ মাহফুজ মারুফ, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সদস্য মো. আব্দুস সালাম ও আনজাম খালেক। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইসলাম রকিব। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব ও বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ র‌্যালি সহকারে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ চত্বরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।
আলমডাঙ্গার চিৎলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষে সভাপতি শাহ আব্দুল বাতেন চুয়াডাঙ্গার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মসলেম ম-ল, আবুল কাশেম, মজিবার রহমান, সমসের ম-ল, সোহেল শাহ, চাষি স্বপন মিয়া প্রমুখ।
সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, সরোজগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। এদিন রাত ১২টা ১মিনিটে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ, সরোজগঞ্জ হোয়াইট হাউজ, সরোজগঞ্জ আঞ্চলিক শাখা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শহীদ বেদিতে পূষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি হাজি মজিবর রহমান, কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান আলি আহম্মদ হাসানুজ্জামান মানিক, শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নিলুয়ার হোসেন, উদীচী সরোজগঞ্জ শাখার সাধারণ সম্পাদক আকিদুল ইসলাম বাপ্পি প্রমুখ।
আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, অমর একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলমডাঙ্গায় উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আলমডাঙ্গা থানা প্রশাসন, আলমডাঙ্গা পৌরসভা, আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে রাত ১২টা ১ মিনিটে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। আলমডাঙ্গা থানা, উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদফতর, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা শিক্ষা অফিস, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আলমডাঙ্গা পৌর পরিষদ, পৌর প্রশাসক, উপজেলা ছাত্রলীগ, পৌর ছাত্রলীগ, কলেজ ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, উপজেলা যুবলীগ, পৌর যুবলীগ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, জেলা মৎস্যজীবী লীগ, উপজেলা মৎস্যজীবী লীগ, আলমডাঙ্গা বণিক সমিতি, পল্লি বিদ্যুৎ, ওজোপাডিকো, আলমডাঙ্গা সরকারি ডিগ্রি কলেজ, মহিলা ডিগ্রি কলেজ, আলমডাঙ্গা সরকারি পাইলট বহুমুখি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা পাইলট বালিকা বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা সিদ্দিকীয়া আলিম মাদরাসা, সামাজিক সংগঠন সখি ফ্লিমস অ্যান্ড সৃষ্টি মাল্ট্রিমিডিয়ার পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।
আসমানখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার গাংনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ শহীদ মিনারে রাত ১২টা ১ মিনিটে সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শ্রদ্ধাঞ্জলি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাংনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তাহের আবু, সাধারণ সম্পাদক রকিবুল হাসান, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রোকনুজ্জামান টোকন প্রমুখ
দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, দামুড়হুদায় রাত ১২টা ১ মিনিটে স্থানীয় শহীদ মিনারে সকল শহীদদের স্মরণে শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর। এরপর দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগ, দামুড়হুদা মডেল থানা, দর্শনা থানা, উপজেলা যুবলীগ, উপজেলা কৃষক লীগ, উপজেলা ছাত্রলীগ, আব্দুল ওদুদ শাহ্ ডিগ্রি কলেজ, দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড বাজার কমিটিসহ উপজেলার সরকারি, বেসরকারি বিভিন্ন দফতর, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, অংগসংগঠন শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, রাত ১২টা ১ মিনিটে জীবননগর পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্যদিয়ে জীবননগরে একুশের কর্মসূচি শুরু করা হয়। উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদ, উপজেলা সমাজসেবা অফিস, জীবননগর থানা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জীবননগর পৌরসভা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, উপজেলা কৃষক লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ উপজেলা যুবলীগ, উপজেলা ছাত্রলীগ, কলেজ ছাত্রলীগ, পৌর যুবলীগ, বিএনপি, বাংলাদেশ জাসদ, জীবননগর অফিসার্স ক্লাব, জীবননগর প্রেসক্লাব, জীবননগর সাংবাদিক সমিতি, জীবননগর-দৌলৎগঞ্জ বাজার আহ্বায়ক কমিটি, জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, জীবননগর সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজ, জীবননগর ডিগ্রি কলেজ, জীবননগর পাইলট হাইস্কুল, জীবননগর সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, শাপলাকলি আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শাইন ক্লাব, এসএসসি ৮৭ ব্যাচ, সারা বাংলা ৮৮ জীবননগর উপজেলা শাখা, আবু সাইদ মোহাম্মদ সাদ, জীবননগর উপজেলা মিশুক-ইজিবাইক মালিক সমিতি, শিকড় সমাজ কল্যাণ সংস্থা, ডিসকভারি ক্যাবল নেটওয়ার্ক ও সংগীত সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ হতে শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা ও উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার সেয়দ আব্দুল জব্বার সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন। এছাড়াও উপজেলার মনোহরপুর, কেডিকে, উথলী, আন্দুলবাড়িয়া, রায়পুর, হাসাদাহ, বাঁকা, জীবননগর পৌরসভা ও সীমান্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক দল ও অঙ্গসংগঠনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ হতে স্ব-স্ব এলাকার শহীদ বেদীতে মহান একুশ উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয় বলে খবর পাওয়া গেছে।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, যথাযোগ্য মর্যাদায় মেহেরপুরে অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে। গতকাল রোববার প্রথম প্রহরে মেহেরপুর শহীদ ড. সামসুজ্জোহা নগর উদ্যানে অবস্থিত শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্যদিয়ে দিনটি সূচনা করা হয়। রাত ১২টা ১ মিনিটে একুশের প্রথম প্রহরে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি’র পক্ষে ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খান। এরপর সেখানে বিচার বিভাগের পক্ষে জেলা ও দায়রা জজ ওয়ালিউল ইসলাম, জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার রাফিউল আলম, জেলা মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে ক্যাপ্টেন অব. আব্দুল মালেক, স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষে সিভিল সার্জন ডা. জওয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী, মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক অ্যাড. এসএম ইব্রাহীম শাহীন, মেহেরপুর জেলা পরিষদের পক্ষে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম রসূল, শহর আওয়ামী লীগের পক্ষে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, পৌরসভার পক্ষে পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, মেহেরপুর সরকারি কলেজের পক্ষে প্রফেসর শফিউল আলম সর্দ্দার, সরকারি মহিলা কলেজের পক্ষে প্রফেসর রফিকুল ইসলাম, মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পক্ষে নজমুজ্জামান, টিটিসির পক্ষে অধ্যক্ষ আরিফ আহমেদ তালুকদার, জেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা দলের পক্ষে জেলা কমান্ড্যান্ট রাকিবুল ইসলাম, জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের পক্ষে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন ইয়াহিয়া, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পক্ষে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম আবু রায়হান, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পক্ষে পরিদর্শক আব্দুল মান্নান, মেহেরপুর জেলা যুবলীগের পক্ষে আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান রিটন ও যুগ্ম-আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম পেরেশান, জেলা ছাত্রলীগের পক্ষে সভাপতি আবদুস সালাম বাঁধন ও মাসুদ রানা, মেহেরপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সাধারণ সম্পাদিকা লাভলী ইয়াসমিন, মেহেরপুর জেলা যুবমহিলা লীগের পক্ষে সভানেত্রী সামিউন বাসিরা পলি, মেহেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষে সভাপতি অ্যাড. মারুফ আহমেদ বিজন, জেলা শিল্পকলার পক্ষে সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সাইদুর রহমান, জাতীয় মহিলা সংস্থার পক্ষে চেয়ারম্যন শামীম আরা হীরাসহ মেহেরপুর প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি ফারুক হোসেন, মেহেরপুর ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন, জাগো বাঙালিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পৃথক পৃথকভাবে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।
মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগরে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারি প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে মুজিবনগর উপজেলা কার্যালয় চত্বরে অবস্থিত শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার। পরে উপজেলা পরিষদের পক্ষে চেয়ারম্যানের জিয়াউদ্দীন বিশ্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ রফিকুল ইসলাম মোল্লা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা খাতুন, মুজিবনগর থানার পক্ষে ওসি মো. মেহেদী রাসেল, ট্যুরিস্ট পুলিশ, উপজেলা আনসার ভিডিপি, মুজিবনগর ফায়ার সার্ভিস, মুজিবনগর সরকারি ডিগ্রি কলেজ, মুজিবনগর আদর্শ মহিলা কলেজ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সভাপতি জিয়াউদ্দীন বিশ্বাস ও পৃথকভাবে মুজিবনগর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মহাজনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ আমাম হোসেন মিলু, মোনাখালী ইউপি আ.লীগের পক্ষে সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফা গাইন, দারিয়াপুর ইউপি আ.লীগের সভাপতির পক্ষে মোস্তাকিম হক খোকন কমান্ডার, বাগোয়ান ইউপি আ.লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান মধু, মহাজনপুর ইউপি আ.লীগের পক্ষে সভাপতি রেজাউর রহমান নান্নু, মহাজনপুর ইউপির পক্ষে চেয়ারম্যান আলহাজ আমাম হোসেন মিলু, বাগোয়ান ইউপি পরিষদের পক্ষে চেয়ারম্যান আরূব হোসেন, মোনাখালী ইউপি পরিষদের পক্ষে ইউপি সদস্যবৃন্দ, দারিয়াপুর ইউপি পরিষদের পক্ষে চেয়ারম্যান এস.এম মাহববুর রহমান রবি, উপজেলা যুবলীগের পক্ষে সভাপতি কামরুল হাসান চাঁদু, উপজেলা ছাত্রলীগের পক্ষে সভাপতি হেলাল উদ্দীন সাধারণ সম্পাদক শেখ সাকিব, উপজেলা কৃষক লীগের পক্ষে সভাপতি নজরুল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষে সভাপতি বেলাল হাসান বিপ্লব, উপজেলা তাঁতিলীগের পক্ষে আহবায়ক আব্দুল খালেক, মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পল্লী বিদ্যত মুজিবনগর, উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ, যুব মহিলা লীগ মুজিবনগর, বন বিভাগ মুজিবনগর পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। প্রথমে শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More