আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবো

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময়সভায় কেন্দ্রীয় যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা-পৌর ২৭ অক্টোবর এবং ১২ নভেম্বর জেলা আ.লীগের সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী ১৭ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মাহফুজুর রহমান মঞ্জুকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা, পৌর ও জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠান নিয়ে আলোচনা করেন নেতৃবৃন্দ। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন আগামী ১২ নভেম্বর এবং ২৭ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাহাউদ্দিন নাসিম বলেন, আগামী ১৭ অক্টোবর সারা দেশের ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী, জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রার্থী এবং আমাদের সকলের প্রার্থী হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলাতে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজুর রহমান মঞ্জুকে। আমরা আশাবাদী আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীই এই ভোটে জয়যুক্ত হবে।

তিনি বলেন, ‘চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ নির্বাচনে যারা ভোটার আছেন, তাদের অনেকেই এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়নি বা বিভিন্ন কারণে আসতে পারেনি। অনেককেই সময় মতো জানানো সম্ভব হয়নি। যারা খবর পেলে হয়তো আসতো, যারা আসতে পারেননি আমি আপনাদের মাধ্যমে তাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আপনারা তাদেরকে বলবেন, আমরা সবাই মিলে এই নির্বাচনে আমাদের প্রার্থী মঞ্জু ভাইকে মোটরসাইকেল মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবো।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আমাদের মধ্যে ভুল-বোঝাবুঝি থাকতে পারে, প্রতিযোগিতা থাকতে পারে। কিন্তু এই প্রতিযোগিতাকে প্রতিহিংসায় রুপান্তর করে আত্মঘাতীর সংঘাতে লিপ্ত হওয়া যাবে না। ঐক্যবদ্ধ থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী মাহফুজুর রহমান মঞ্জুকে বিজয়ী করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি অতিথিবৃন্দসহ উপস্থিত সকলকে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, সকলেই এক বাক্যে বলেছেন এই নির্বাচনে আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীর পাশে থেকে তাকে নির্বাচনে জয় যুক্ত করা যায় সেই ব্যবস্থা করবো। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ যারা এসেছেন, এই অনুষ্ঠানগুলো আরো একটু আগে করা হলে দল উপকৃত হতো, প্রার্থী উপকৃত হতো। এক জেলার হাওয়া পাশের জেলায় লাগে। খুলনা বিভাগের সব জেলায় অনুষ্ঠানগুলো করা হলে সব জেলাতেই কর্মীরা আরো বেশি সক্রিয় হতো।

তিনি বলেন, ২০০১ সালে যখন নির্বাচন হয়েছে, তখন অনেককেই আমরা মাঠে পাইনি। যারা দলের দুঃখের সময় মাঠে থাকে তারাই দলের অরিজিনাল কর্মী। সে সময় মাঠ, ঘাট, সকল স্থানে আমি দলের জন্য কাজ করেছি। আমার শক্তি ছিল বলেই সেই শক্তিকে দলের শক্তিতে রুপান্তর করেছি। যারা সুখে ও দুঃখে আওয়ামী লীগের পাশে ছিল, পাশে থাকে তারায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক।

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মাহফুজুর রহমান মঞ্জু। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু মূসা, সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলি মাস্টার, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান নান্নু, চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খুস্তার জামিল, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল মালেক, মুন্সি আলমগীর হান্নান, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডা. মাহবুব হোসেন মেহেদী, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ও সাবেক পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, জেলা আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার প্রমুখ।

এদিকে, নির্বাচনী মতবিনিময় শেষে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে সম্মেলন নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনার মাধ্যমে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয় আগামী ১২ নভেম্বর। এর আগে চলতি মাসেই অর্থাৎ আগামী ২৭ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More