ইভিএম পদ্ধতিতে চুয়াডাঙ্গার গড়াইটুপি নির্বাচনে শতকরা ৮২ ভাগ ভোট পোল

চেয়ারম্যান রাজুসহ নির্বাচিত ১৩ জন জনপ্রতিনিধি হলেন ইতিহাস

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে শতকরা ৮২ ভাগ ভোট পোল হয়েছে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪০ ভোট বাতিল হয়েছে এবং বৈধ হয়েছে ১৩ হাজার ৪৬৩ ভোট। মোট ১৬ হাজার ৪৭৪ ভোটের মধ্যে পোল হয়েছে ১৩ হাজার ৫০৩ ভোট। প্রথমবারের মধ্যে জেলায় ইভিএম’র মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় ভোট দিতে দেখা গেছে। বিশেষ করে নারীর ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে উপস্থিতি ছিলো বেশি।
নবগঠিত গড়াইটুপি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রথম পরিষদের নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত সদস্য ও সাধারণ সদস্যরা ইতিহাসের অংশ হিসেবে পরিষদে নাম লেখালেন। নির্বাচিতরা হলেন চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শফিকুর রহমান রাজু, সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে কালুপোলের নাসিমা খাতুন, সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে গহেরপুরের মৌসুমী বেগম এবং সংরক্ষিত ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে সড়াবাড়িয়ার তাছলিমা খাতুন।
সাধারণ সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে কালুপোলের সাইদ খোকন, ২নং ওয়ার্ডে গোষ্টবিহারের আব্দুল হক, ৩নং ওয়ার্ডে খাড়াগোদার হাফিজুর রহমান, ৪নং ওয়ার্ডে খাড়াগোদার আককাচ আলী, ৫নং ওয়ার্ডে তেঘরী গ্রামের ফারুক হোসেন খান, ৬নং ওয়ার্ডে গহেরপুরের জিল্লুর রহমান, ৭নং ওয়ার্ডে বাটিকাডাঙ্গার আলমগীর হোসেন, ৮নং ওয়ার্ডে সড়াবাড়িয়ার মো. আসাদুল্লাহ এবং ৯নং ওয়ার্ডে গবরগাড়ার ফারুক মিয়া নির্বাচিত হয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটানিং কর্মকর্তা মো. কামরুল হাসান বলেন, গড়াইটুপি ইউপি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে শতকরা ৮২ ভাগ ভোট পোল হয়েছে। বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মানুষ ভোট দিতে এসেছেন তার জন্য ভোটারদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। নির্বাচনে কোনো প্রার্থী কিংবা পোলিং এজেন্টদের কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। নির্বাচনে যেসকল ছোটখাট সমস্যা ছিলো সেবিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে অবগত করানো হয়েছে। আশা করি ভবিষ্যতে আরো ভালোভাবে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটাররা ভোট দিতে পারবেন।
প্রসঙ্গত : সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদ ভেঙে গড়াইটুপি ইউনিয়ন পরিষদ গঠন করা হয়। সেই পরিষদের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো ২০ অক্টোবর। তবে, তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন খুব শিগগিরই অনুষ্ঠিত হবে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More