একুশের চেতনায় দৃঢ় অঙ্গীকার

বিনম্র শ্রদ্ধায় সারাদেশে ভাষা শহীদদের স্মরণ
মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে ভাষা শহীদদের স্মরণের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস পালিত হচ্ছে সারাদেশে। করোনাকালেই শহীদ মিনারের বেদী ভরে উঠে ফুলে ফুলে। সর্বত্র বাজল সেই বেদনা সঙ্গীত: আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/আমি কি ভুলিতে পারি…। আরও নানা আয়োজনে দেশের প্রতি প্রান্তে পালিত হলো মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। নানা আনুষ্ঠানিকতার পাশাপাশি এদিন অমর একুশের অবিনাশী চেতনায় উদার অসাম্প্রদায়িক মানবিক সমাজ ও রাষ্ট্র গড়ে তোলার দৃঢ় অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছে বাঙালি। ধর্মীয় মৌলবাদ জঙ্গিবাদ ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতিকে প্রত্যাখ্যান করার ঘোষণা দিয়েছে। একুশ মানে মাথা নত না করা। বিদেশিদের মোড়লীপনা, চোখ রাঙানি, ভয় দেখানোর কূটনীতি তাই কাজে আসেনি। বরং নিজ জাতিসত্তা ও সংস্কৃতির বিপুল জাগরণ দেখেছে বাংলাদেশ। বাঙালির ভাষার লড়াই একইসঙ্গে ঔপনিবেশিক প্রভুত্ব ও শাসন শোষণের বিরুদ্ধে প্রথম প্রতিরোধ হিসেবে গণ্য হয়। নিজস্ব জাতিসত্তা, স্বকীয়তা ও সাংস্কৃতিক স্বাতন্ত্র্য রক্ষার সংগ্রাম হিসেবেও এর রয়েছে আলাদা তাৎপর্য। অমর একুশের দিনেই পাকিস্তানিদের সবেচেয়ে ভালো চিনতে পেরেছিলো পাকিস্তানের পূর্ব অংশের জনগণ। তাদের সঙ্গে যে থাকা যাবে না- বুঝতে পেরেছিলো। রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের মধ্যদিয়ে বাঙালি জাতিসত্তার যে স্ফূরণ ঘটেছিলো তা-ই পরবর্তীতে মুক্ত স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় মনস্তাত্ত্বিক ও সাংস্কৃতিক প্রেরণা জোগায়। বর্তমানে একুশ এবং একাত্তর অভিন্ন চেতনা ও বাঙালি আদর্শের মূর্ত প্রতীক। প্রতিবারের মতো এবারও অমর একুশের দিনে অবিনাশী চেতনার বিজয় প্রত্যক্ষ করেছে দেশ। ভাষা আন্দোলনের ৭০ বছর উদযাপনের দিনে শোক ও আনন্দ মিলেমিশে একাকার হয়ে গিয়েছিল। বরকত রফিক শফিক জব্বারদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় এদিন। লাল-সবুজের পতাকার পাশাপাশি ওড়ানো হয় কালো পতাকা। অনেকে বুকে কালো ব্যাজ ধারণ করেন।
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গতকাল সোমবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম মালিক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, অ্যাড. শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, মাসুদউজ্জামান লিটু বিশ্বাস, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. আবু তালেব বিশ্বাস, উপ-প্রচার সম্পাদক শওকত আলী বিশ্বাস, চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নাহার কাকলী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদা মিলি, জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি রুকসানা নাবিলা ছন্দা, যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা গিণি ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহানারা খাতুন, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া সাহাব, জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি আফজালুল হক বিশ্বাস, জেলা কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম চন্দন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু, যুবলীগ নেতা আব্দুল কাদের, টুটুল, টিপু টাইগার, চুয়াডাঙ্গা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানিম হাসান তারেক, সাবেক ছাত্রনেতা ফিরোজ জোয়ার্দ্দার, বাপ্পী প্রমুখ।
চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সভাপতি ডিসি পতিœ মেহেনাজ খান, সহসভাপতি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরীন, সহকারী কমিশনার ভুপালি সরকার, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নাহার কাকলী, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান নাবিলা রোকসানা ছন্দা, মহিলা ক্রীড়া সংস্থা যুগ্মসম্পাদক রোমানা আক্তার ও দিলরুবা খুকু।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আয়োজনে হামদ নাত ও রচনা প্রতিযোগিতা এবং বাংলাদেশ শিশু একাডেমি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আয়োজনে চিত্রাঙ্কন ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টায় পৃথক পৃথক আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ পরীক্ষা ভবনে ও কলেজের এফএফ হলে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতা শেষে যৌথভাবে কলেজের কেন্দ্রীয় মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সি আবু সাঈফের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য প্রফেসর প্রফেসর ড. একেএম সাইফুর রশিদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর রেজাউল করিম, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. আব্দুল আজিজ, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জাহিদুল হাসান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক মুহাম্মদ আশরাফ আলী, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আফসানা ফেরদৌসী প্রমুখ।
বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয় উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্র চুয়াডাঙ্গার কর্মকর্তা কর্মচারীগণ চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ চত্বরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারে সকাল ৭টায় পুষ্পার্ঘ অর্পণের মাধ্যমে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের সভাপতি কবি নজমুল হেলাল, সহসভাপতি গোলাম কবীর মুকুল, সাধারণ সম্পাদক নজির আহমেদ, অর্থ সম্পাদক আনছার আলী, দফতর সম্পাদক সুমন ইকবাল, জীবন সদস্য হারুন অর রশিদ, আহমেদ বেলাল প্রমুখ। অপরদিকে, বুজরুকগড়গড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও কবিতা আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন ও ছড়াপাঠ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বুজরুকগড়গড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সুমন ইকবাল। শহীদ’র প্রতি বিশদভাবে আলোচনা করেন বিদ্যালয়ের সভাপতি সুমন ইকবাল ও সহকারী শিক্ষক শারমিন আক্তার। আলোচনা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।
ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ডিঙ্গেদহ সোহরাওয়ার্দ্দী স্মরণী বিদ্যাপীঠ চত্বরে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান নান্নু, সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, শংকরচন্দ্র ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, সাংগাঠনিক সম্পাদক শওকত মাহামুদ, ইউপি সচিব আশাবুল হক মাসুদ। এছাড়াও ডিঙ্গেদহ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে র‌্যালি শেষে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম মোকলেছুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শংকরচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান।
অপরদিকে উদীচী ডিঙ্গেদহ, সোহরাওয়ার্দ্দী স্মরণী বিদ্যাপীঠ। এছাড়াও এডাব ও বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।
সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, সরোজগঞ্জ তেতুল শেখ কলেজ আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশ নেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, আলোকিত মানুষ হাজি আব্দুল্লা শেখ, পদ্মবিলা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস, অধ্যক্ষ মারফুল হক, ছাদেমান নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও বদরগঞ্জ আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলি আহম্মদ হাসানুজ্জামন মানিক, সাবেক চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামসহ পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজি আব্দুল মোতালেব প্রমুখ।
বেগমপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার হিজলগাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কামিটির সভাপতি সুন্নত আলী, প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন স্বপন, সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী হোসেন, সফিকুল ইসলাম, সাজেদুর রহমান, আজিজুল হক, ওয়াজেদ আলী, আবুল হোসেন, শেফালী খাতুন, শাহানাজ পারভীন ও মাসুদ রানা প্রমুখ।
আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে দিবসটি পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো প্রভাতফেরী, পুষ্পস্তবকর্পণ, আলোচনাসভা, চিত্রাঙ্কন ও আবৃত্তি অনুষ্ঠান। প্রত্যূষে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, আলমডাঙ্গা থানা প্রশাসন, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজ, আলমডাঙ্গা মহিলা ডিগ্রি কলেজ, আলমডাঙ্গা সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, এরশাদপুর একাডেমি, এম সবেদ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলমডাঙ্গা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ব্রাইট মডেল স্কুল, আল ইকরা ক্যাডেট একাডেমি, আলমডাঙ্গা প্রি-ক্যাডেট, আলমডাঙ্গা কলেজিয়েট স্কুল, শিশু নিকেতন, আলমডাঙ্গা ডায়াবেটিক সমিতি ও মুক্তিযোদ্ধা সাংস্কৃতিক সংসদ প্রভাতফেরিসহ পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।
অন্যদিকে, বেলগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পাঁচলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হারদী মীর শামসুদ্দিন আহম্মেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুমারী ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাটবোয়ালিয়া স্কুল এন্ড কলেজ ও হাটবোয়ালিয়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে দিনটি নানা কর্মসূচি পালনের খবর জানা গেছে।
আলমডাঙ্গায় কবিতা আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান কাদির গনু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহমেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজি মারজাহান নিতু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রেজুওয়ানা নাহিদ, আলমডাঙ্গা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, বীর মুক্তিযোদ্ধা অগ্নিসেনা মইন উদ্দিন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হাদী জিয়াউদ্দিন আহম্মেদ সাঈদ, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল্লাহিল কাফি, কৃষি অফিসার হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্র্দ্দী পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান, মৎস্য অফিসার ফাতেমা কামরুন্নাহার আখি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এনামুল হক, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাখছুরা জান্নাত, কাউন্সিলর জহুরুল ইসলাম স্বপন, সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কৃষিবিদ গোলাম সরোয়ার, মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আশুরা খাতুন পাতা।
এদিকে দুপুরে ইসলামী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। আলমডাঙ্গা মডেল রিসোর্স সেন্টারে আলোচনা সভায় ইসলামী ফাউন্ডেশনের ফিল্ড অফিসার মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূর। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ইমাম ও এরশাদপুর জামে মসজিদের খতিব হাজি মো. আবুল বাশার, ইসলামী ফাউন্ডেশনের মডেল কেয়ার টেকার হাফেজ মাওলানা ওমর ফারুক, মাসাবা সেবক আব্দুর রহিম। ফিল্ড সুপারভাইজার আক্তারুজ্জামানের উপস্থাপনায় দোয়া পরিচালনা করেন গোবিন্দপুর আদদীন জামে মসজিদের সহজ কুরআন শিক্ষক হাফেজ মো. মারফত আলী।
অপরদিকে, আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রভাতফেরি শেষে সকাল সাড়ে ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করা হয়। পরে আলোচনাসভায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ লিয়াকত আলী লিপু মোল্লাা, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মালেক, পৌর আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক মাসুদ সালেহীন উৎপল, প্রচার সম্পাদক মিজানুর রহমান রিপন, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল হক প্রমুখ।
ভালাইপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার চিৎলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে কয়রাডাঙ্গা গ্রামের কাউছার আলী বিশ্বাস ট্রেডার্স আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান নান্টু। প্রধান অতিথি ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান সরোয়ার। এদিকে প্রত্যাশা সামাজিক উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার জেহালায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসানউজ্জামান হান্নান। এছাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান শিলন। অপরদিকে, ইউনিয়ন বিএনপি ও খাদিমপুর এবং মোমিনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে।
আসমানখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার আসমানখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সভাপতি ডা. জয়নাল আবেদীন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ। এছাড়া ভোগাইল বগাদী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তক অর্পণ করেন ভাংবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান সোহান।
দর্শনা অফিস জানিয়েছে, দর্শনায় নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে দিবসটি পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে দর্শনা পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে দলীয় নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে জাতীয়, দলীয় ও শোক পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কলেজ শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে দর্শনা পৌর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, দর্শনা পৌর আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, দর্শনা পৌর বিএনপি, দর্শনা সরকারি কলেজ, দর্শনা ডিএিস ফাজিল মাদরাসা, দর্শনা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, দক্ষিণচাদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মেমনগর বিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দর্শনা প্রেসক্লাব, অংকুর আদর্শ বিদ্যালয়, লিটিল এনজেলস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, ওয়েভ ফাউন্ডেশন, অনির্বাণ থিয়েটার, দর্শনা রেল বাজার দোকান মালিক সমিতি, পুরাতন বাজার দোকান মালিক সমিতি, দর্শনা স্থলবন্দর, দর্শনা ইলেকট্রনিক্স মিস্ত্রি কমিটি, ফারিয়া, মৌচাক সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা, রূপসী বাংলা সোসাইটি লিমিটেড, রামাযুস, কমিউনিস্ট পার্টি, শ্যামপুর, পূর্বরামনগর, পরাণপুর, দক্ষিণ চাঁদপুর, কাস্টমস, জয়নগর, শান্তিনগর, আজমপুর, পশ্চিম-রামনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুক্তি ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন, রিকসা ও ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন, নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন, লাল সুবজ উন্নয়ন সংস্থাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন। শপথ বাক্য পাঠ করান দর্শনা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম। দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, ইউপি চেয়ারম্যান এসএএম জাকারিয়া আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, উপধ্যক্ষ মফিজুর রহমান, দর্শনা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক আরিফ, সিরাজুল ইসলাম, দর্শনা পৌর প্যানেল মেয়র রবিউল হক সুমন, রেজাউল ইসলাম, জাসদ নেতা জাহাঙ্গীর আলম লুলু, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান ছোট, সহসম্পাদক আব্দুল মান্নান খান, দর্শনা পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসলাম আলী তোতা, দামুড়হুদা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ মল্লিক, দর্শনা পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ববি, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন তপু প্রমুখ। কেরুজ চিনিকল কর্তৃপক্ষ ও শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশারফ হোসেন, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) শেখ শাহাব উদ্দিন, কেরুজ শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ সবুজ, সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান, সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহসম্পাদক খবির উদ্দিন প্রমুখ।
দামুড়হুদায় উপজেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিসের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা সাব রেজিস্ট্রার নাফিয বিন যামান, অফিস সহকারী আজিজুর রহমান, অফিস সহায়ক সেলিম, মিলন, কপিস্ট জুবায়ের হাসান, লিটন প্রমুখ। এছাড়া উপজেলা দলিল লেখক সমিতির পক্ষ থেকে পুষ্পার্ঘ অর্পণের সময় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, যুগ্মসম্পাদক নূর আলম লাভলু, মোমিনুল ইসলাম মনির, অর্থ সম্পাদক শমশের আলী, সদস্য ইউসুফ আলী খান, ইছা মেম্বার, উসমান প্রমুখ। এদিকে গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দামুড়হুদা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপারভাইজার মরিয়া মাহবুবার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার মনিরুজ্জামান।
কুড়–লগাছি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কুড়–লগাছি ইউনিয়ন পরিষদ, কুড়–লগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুড়–লগাছি দাখিল মাদরাসা, সদাবরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ধান্যঘরা, চ-িপুর, কুড়–লগাছি, বুইচিতলা, প্রতাবপুর, ফুলবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকালে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, অভিভাবকদের সাথে নিয়ে প্রভাতফেরি শেষে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। কুড়–লগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ওসমান গনির সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুড়–লগাছি ইউপি চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দীন।
কার্পাসডাঙ্গা/ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আ.লীগের উদ্যোগে কার্পাসডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ চত্বরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তপক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আ.লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল করিম, সহসভাপতি আব্দুল কাদের বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক নজির আহমেদ, যুগ্মসম্পাদক আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সাংগাঠনিক সম্পাদক জাহিদুর রহমান মুকুল, মখলেসুর রহমান রিপন প্রমুখ। এছাড়া কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে।
অপরদিকে, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে র‌্যালি শেষে কার্পাসডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। এ সময় উপসস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের নেতা খলিলুর রহমান রহমান ভুট্টো, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাফিকউর রহমান মাস্টার, শিক্ষক আলাউদ্দিন, এমএ জলিল, রমজান আলী, প্রচার সম্পাদক মিস্টার নিমু ম-ল, আমজাদ আলী, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান রানা বিশ্বাস, সহ-সভাপতি তুহিন আক্তার, যুগ্মসম্পাদক রকিবুল ইসলাম, খালিদ হাসান প্রমুখ।
আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে গতকাল সোমবার সকাল ৮টায় দলের অস্থায়ী কার্যালয় আজাদ পাবলিক লাইব্রেরি চত্বরে জাতীয় ও দলীয় পতকা উত্তোলন করা হয়। অনুষ্ঠানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার, সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিদুল ইসলাম মধু উপস্থিত ছিলেন। পরে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও সাহিত্য পরিষদ, আন্দুলবাড়িয়া কলেজ, বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বহুমুখী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হারদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে দিবসটি পালন করেছে।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে গতকাল সোমবার রাতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীবৃন্দ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত, নৃত্য ও আবৃত্তি পরিবেশন করেন। জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মুনসুর আলম খান প্রধান অতিথি ছিলেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মৃধা মো. মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক লিংকন বিশ্বাস, নাজমুল হুদা, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামান রিপন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ আবু সাঈদ, পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্য, জেলা বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি প্রফেসর হাসানুজ্জামান মালেক, মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান, মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোখলেসুর রহমান প্রমুখ অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন।
এদিকে, মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মুনসুর আলম খান উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. মো. জওয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক লিংকন বিশ্বাস, নাজমুল হুদা, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামান রিপন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ আবু সাঈদ, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কাজী কাদের মোহাম্মদ ফজলে রাব্বী, জেলা যুব উন্নয়ন দপ্তরের উপ-পরিচালক কেএম জাহিদ হোসেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন ইয়াহিয়া, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালকের শাহীন কবীর, জেলা ক্রীড়া অফিসার আরিফ আহমেদ প্রমুখ।
অপরদিকে, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মেহেরপুর জেলা বিএনপি’র শোভাযাত্রা ও পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে মেহেরপুর জেলা বিএনপির কার্যালয় চত্বর থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মাসুদ অরুনের নেতৃত্বে শোভাযাত্রাটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মেহেরপুর শহীদ শামসুজ্জোহা নগর উদ্যানে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুর রহমান, পৌর বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর বিশ্বাস, মুজিবনগর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আমিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক রোমানা আহাম্মেদ রোমা, সদর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাবুদ্দিন মোল্লা, জেলা যুবদলের সভাপতি জাহিদুল হক জাহিদ, সাধারণ সম্পাদক আজমল হোসেন মিন্টু, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী সাইদাতুন নেসা নয়ন, কৃষক দলের সভাপতি মাহবুবুর রহমান, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সহ-সভাপতি আকিব জাভেদ সেনজির, জেলা জাসাস’র আহবায়ক মাহফুজুর রহমান অশেষ সদস্য সচিব বাকাবিল্লা প্রমুখ।
গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে মেহেরপুরের গাংনীতেও ভাষা শহীদের স্মরণে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে ফুল দেয়ার মধ্যদিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়। গাংনী উপজেলা পরিষদ চত্বর শহীদ মিনারে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে প্রথমে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ খালেক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী খানম। গাংনী থানার পক্ষে ওসি আব্দুর রাজ্জাক, গাংনী প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম, উপজেলা কৃষি অফিস, মুক্তিযোদ্ধ কমান্ডার, উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত আলোচনা শেষে ভাষা শহীদদের মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়। এদিকে সকালে বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। এছাড়াও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে আলাদাভাবে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে মহান ভাষা দিবস উদযাপন করা হয়।
মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগরে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করে আলোচনাসভা ও রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। মুজিবনগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার আব্দুর রবের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মুজিবনগর থানা ওসি মেহেদী রাসেল, উপজেলা কৃষি অফিসার আনিসুজ্জামান খান, উপজেলা প্রকৌশলী শাহীন আক্তার, টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সামিমুল কবির প্রমুখ। আলোচনা শেষ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের চিত্রাংকন, কবিতা আবৃত্তি, বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও ইসলামিক ফাউন্ডেশন মেহেরপুরের আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ১১টায় আলোচনাসভায় ফিল্ড অফিসার আমানুল্লাহর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন মুজিবনগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শফিউদ্দীন, মাওলানা সাইদুর রহমান, সাধারণ কেয়ারটেকার মখলেছুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন মডেল কেয়ারটেকার মোহাম্মদ আলী খান। আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মুজিবনগর কমপ্লেক্স জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মতিউর রহমান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More