করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে চুয়াডাঙ্গার  পুরো দামুড়হুদা উপজেলা লকডাউন

করোনার সংক্রমন বৃদ্ধিতে সীমান্তবর্তী চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলা পুরোপুরি লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আয়োজিত উপজেলা কোভিড-১৯ প্রতিরোধ সংক্রান্ত জরুরী সভায় ওই সিদ্ধান্তের কথা জানান জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।  আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ৬ টা থেকে আগামী ১৪ দিন পর্যন্ত ওই লকডাউন কঠোরভাবে কার্যকর করা হবে।  এ উপজেলার সীমান্তবর্তী কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নে করোনার সংক্রমন বাড়ায় গত ২ জুন ৭টি গ্রাম ও নাটুদহ ইউনিয়নের ২ টি এলাকা লকডাউন করে প্রশাসন।  পরে ৬ জুন কুড়ুলগাছী ও পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের আরও ৯ টি গ্রাম লকডাউন করা হয়। দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে করোনা প্রতিরোধ সংক্রান্ত  জরুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলারা রহমান।  প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু।  এছাড়া সভায় সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডা. আওলিয়ার রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় জানানো হয়, আগামীকাল সকাল ৬ টা থেকে ১৪ দিন পর্যন্ত দামুড়হুদা উপজেলা পুরোপুরি লকডাউন করা হলো।  লকডাউনকৃত এলাকায়  জরুরী পরিসেবা ছাড়া সব ধরণের যানবাহন বন্ধ থাকবে। ওষুধের দোকান ছাড়া সব ধরণের দোকান বন্ধ থাকবে। সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত কাঁচা বাজার খোলা থাকবে।  সংক্রমিত এলাকায় অস্থায়ী মেডিকেল ক্যাম্প বসিয়ে নমুনা পরীক্ষা করবে স্বাস্থ্য বিভাগ। দামুড়হুদা উপজেলা থেকে কেউ বাইরে যেতে পারবেন না।  স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন। করোনায় আক্রান্তের বাড়ি লকডাউনের পাশাপাশি তাদের প্রয়োজনীয় ওষুধ ও খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।  এছাড়া শ্রমিক ও দিনমজুরদেও খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।  পরে প্রজ্ঞাপন জারি করে বিস্তারিত জানানো হবে। সভায় জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার জানান, দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে অবৈধ পথে দেশে আসছে মানুষ। এছাড়া ওই এলাকায় অনেকগুলো চুল প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠান রয়েছে।  তারা বিভিন্ন সময় ভারতে অবৈধভাবে যাতায়াত করেন।  আর এই কারণেই ওই এলাকায় করোনার সংক্রমন বেড়েছে। 

তিনি আরও জানান, সর্বপরি দামুড়হুদা উপজেলায় ব্যাপকভাবে বেড়েছে করোনার সংক্রমন। তাই আগামীকাল থেকে ১৪ দিন দামুড়হুদা উপজেলা পুরোপুরি লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। লকডাউনকৃত এলাকায় নিয়মিত তদারকি করবে প্রশাসন।  জনসচেতনতার পাশাপাশি করা হবে মাস্ক বিতরণ।  করোনার সংক্রমনরোধে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক।চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় চুয়াডাঙ্গা জেলায় ৫৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২ হাজার ২৭৯ জন। মারা গেছেন ৭১ জন। নতুন আক্রান্ত ৫৭ জনের মধ্যে ৩৫ জনই দামুড়হুদা উপজেলার বাসিন্দা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More