কিছু ব্যক্তি বা চক্র উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে হিংসা ছড়ায়

সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি

স্টাফ রিপোর্টার: সামাজিক সম্প্রীতি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়ে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বলেছেন, নিজ নিজ ধর্মের ধর্মীয় অনুশাসন মেনে ধর্মপালনে আন্তরিক হলে সম্প্রীতি বিঘিœত হয় না। সমাজে শান্তি বিরাজ করে। এ দিক দিয়ে চুয়াডাঙ্গা অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী জেলা। সমাজের মানুষ সম্প্রীতি প্রত্যাশা করে। কিছু ব্যক্তি বা চক্র উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে রাজনৈতিক ফায়দা নেয়ার জন্য ষড়যন্ত্র করে। হিংসা ছড়ায়। সকলে সতর্ক হয়ে সচেনতা ছড়ালে ষড়যন্ত্রকারীরা সে সুযোগ পায় না।
ব্রিটিশ আমলে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে কীভাবে অশান্তি ছড়িয়েছিলো তার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি বলেছেন, সেই উপনিবেশ আমলে ছড়ানো বিষবাষ্পের কুপ্রভাব এখনও রয়েছে। তারই সূত্রধরে স্থান ভেদে বিভিন্ন ধর্মের কিছু মানুষ হিংসা উষ্কে দেয়ার সুযোগ খোঁজে। এই সুযোগ পাবে না, যদি ধর্মকে রাজনীতির মধ্যে না টানে। রাজনৈতিক প্রতিটি দল তার নিজস্ব আদর্শের উপর দাঁড়িয়ে তাদের আদর্শ বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্ব দিলে সামাজিক সম্প্রীতি বিনষ্টের কথা নয়।
গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়েড় ১১টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভিক্টোরিয়া জুবিলি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি আরও বলেন, কোন ধর্মেই তো মানুষে মানুষে বিভেদ সৃষ্টিকে সমর্থন করে না। একবার ভারত ভ্রমণে গিয়ে শ্রী শ্রী কৃষ্ণের জন্মভূমি মথুরা পরিদর্শনকালে দেখেছি পাশাপাশি মসজিদ মন্দির। যার যার ধর্ম তার তার মত করে নির্বিঘেœ পালন করছে। একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাও জানাচ্ছে। বিভিন্ন স্থানে হিংসার আড়ালে থাকে ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা। তারাই ভুল ব্যখ্যা করে যাদের বিশেষ উদ্দেশ্য থাকে। মহান মুক্তিযুদ্ধ করেছি সকল ধর্মের মানুষ এক সাথে জীবনের ঝুকি নিয়ে কাধে কাঁধ মিলিয়ে। এদেশের সকল নাগারিকের নিজ নিজ ধর্ম পালনের অধিকার রয়েছে। সমাজের সাধারণ মানুষগুলোকে সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষার্থে বিশেষভাবে সচেতন থাকতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সার্বিক উন্নয়নের পাশাপাশি সামাজিক সম্প্রীতি অক্ষুন্ন রাখার সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, মহিলা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এসএম ই¯্রাফিল, জেলা শিক্ষা অফিসার আতাউর রহমান, ভিক্টোরিয়া জুবিলি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিল্লাল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক মুন্সি আবু সাইফের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার চুয়াডাঙ্গা উপ পরিচালক জামিল সিদ্দিক, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি সরদার আল আমিন, আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মো. জান্নাত আলী, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাজেশ কুমার পাল, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গরিব রোহানী মাসুম, সদর উপজেলা পরিষদের সংরক্ষিত ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাতি মিলি, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুন ন্হার কাকলী, সাংবাদিক এমএ মামুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন কোর্ট জামে মসজিদের ইমাম মুফতি রুহুল আমিন, পবিত্র গিতা থেকে পাঠ করেন সুনীল মল্লিক।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More