চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গা-ঝিনাইদহে নৌকা পেলেন যারা

আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত

স্টাফ রিপোর্টার: চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল এই চার বিভাগের ৩৫৪টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এ সময় তিনটি পৌরসভা নির্বাচনেরও দলীয় মেয়র প্রার্থীর নাম প্রকাশ করা হয়। গতকাল বিকেলে প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। এর আগে শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় এ প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩টি পৌরসভা এবং চতুর্থ ধাপের রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়। শনিবার দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ওই প্রার্থীদের চূড়ান্ত করা হয়। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমন তথ্য জানিয়েছেন। আগামী ২৩ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে সারা দেশে ৮৪০টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ হবে। এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। ২৮ নভেম্বর তৃতীয় দফার ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বাকি ইউনিয়নগুলোতে বিভিন্ন ধাপে ভোট গ্রহণ হবে। তবে নির্বাচন কমিশন চতুর্থ ধাপ পর্যন্ত তফসিল ঘোষণা করেছে। সারা দেশে সাড়ে চার হাজারের বেশি ইউনিয়ন আছে।
৩৫৪টি ইউনিয়নের মধ্যে খুলনা বিভাগের চুয়াডাঙ্গার সদর উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদে, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ১৫টি, কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলার ৯টি কুমারখালীর ১১টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন যারা পেয়েছেন তারা হলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলুকদিয়া ইউপিতে মো. আবুল কালাম আজাদ, মোমিনপুরে মো. আব্দুল্লাহ-আল মামুন, কুতুবপুরে আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিক ও পদ্মবিলায় মো. আলম। ঝিনাইদহ জেলার ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাধুহাটি ইউপিতে মো. শফি উদ্দীন আহমেদ, মধুহাটিতে মো. আলমগীর আজাদ, সাগান্নায় মোজাম্মেল হোসেন শেখ, হলিধানীতে মো. আবুল হাসেম, কুমড়াবাড়ীয়ায় মো. আশরাফুল ইসলাম, গান্নায় আতিকুল হাসান মাসুম, মহারাজপুর আরিফ আহমেদ, পোড়াহাটি মো. শহিদুল ইসলাম হিরন, হরিশঙ্করপুরে আব্দুল্লাহ আল মাসুম, পদ্মাকর সৈয়দ নিজামুল গনি, দোগাছি মো. ইসহাক আলী জোয়ার্দ্দার, ফুরসুন্দি, মো. শহিদুল ইসলাম শিকদার, ঘোড়শাল মো. পারভেজ মাসুদ, কালীচরণপুরে কৃষ্ণপদ দত্ত ও নলডাঙ্গায় মো. রেজাউল করিম।
খুলনা বিভাগের কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলার গোপগ্রামে মো. আলমগীর হোসেন, শিমুলিয়ায় আব্দুল মজিদ খাঁন, জয়ন্তীহাজরায় মো. আব্দুর রাজ্জাক, বেতবাড়ীয়ায় মো. বাবুল আখতার, ওসমানপুরে মো. আনিচুর রহমান। জানিপুরে মো. হবিবর রহমান ও আমবাড়ীয়ায় মো. মনিরুজ্জামান বিশ্বাস, খোকসায় মো. আব্দুল মালেক ও শোমসপুরে মো. বদর উদ্দিন খান। কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউপিতে সাদিয়া জামিল, শিলাইদহে মো. সালাহ্উদ্দীন খান তারেক, জগন্নাথপুরে শেখ ফারুক আজম, সদকীকে মিনহাজুল আবেদীন দ্বীপ, নন্দলালপুরে মো. নওশের আলী বিশ্বাস, চাপড়ায় মনির হাসান, বাগুলাটে মো. আজিজুল হক নবা, যদুবয়রায় মো. মিজানুর রহমান, চাঁদপুরে মা. সোহরাব উদ্দিন মিয়া, পান্টিতে মো. কামরুজ্জামান ও চরসাদীপুরে মো. তোফাজ্জল হোসেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More