চুয়াডাঙ্গার যুবক মেহেরপুরে পড়ে ছিলো রাস্তায় : করোনা সন্দেহে এগিয়ে আসেনি কেউ : উদ্ধার করলো পুলিশ

অজ্ঞান করে ইজিবাইক ছিনতাই

মেহেরপুর প্রতিনিধি: অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকা যুবককে পথচারিরা দেখেও উদ্ধারে এগিয়ে যাননি তাদের কেউ। করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে সকলেই যখন দূরে সরে দাঁড়ান তখন পুলিশ এসে যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে।
মেহেরপুর সদর উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চাঁদপুর শিশিরপাড়া থেকে অচেতন অবস্থায় কবির (২৬) নামের এক যুবক পড়ে ছিল। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পড়ে থাকা যুবককে বলিয়ারপুর পুলিশ ক্যাম্পের এসআই উত্তম চক্রবর্তী দেখে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। ওষুধও কিনে দিয়েছেন তিনি।
এসআই উত্তম জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান- করোনা আক্রান্ত বলে কেউ ওই যুবকের কাছে আসেনি। পুলিশ সাধারণ মানুষের সহযোগিতা চেয়েও ব্যর্থ হয়। একপর্যায়ে ক্যাম্পে খবর পাঠিয়ে সহকর্মীদের নিয়ে আলগামন যোগে দুপুরে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে ১২ নম্বর বেডে তিনি চিকিৎসাধীন। কবিরের চাচা ঝন্টু জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের মহিলা কলেজ পাড়ায় তাদের বাড়ি। কবির পেশায় ইজিবাইক চালক। কবিরের বাবার নাম শহিদুল ইসলাম। সকাল ৯টার দিকে রোজকারমতো কবির ইজিবাইক নিয়ে বেরিয়ে আসে। বেলা ১০টার পর থেকে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।
বলিয়ারপুর ক্যাম্পের এসআই উত্তম চক্রবর্তী ধারণা করে বলেছেন, সে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে থাকতে পারে। কারণ তার মোবাইল ফোন ও ইজি বাইকের কোন হদিস মেলেনি। সে সুস্থ হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More