চুয়াডাঙ্গার ১৩ মেহেরপুরের ৬ ইউনিয়নে আজ ভোট

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ আজ। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ১৩টি ও মেহেরপুর সদর ও গাংনী উপজেলার ৬টিসহ ভোটগ্রহণ হবে সারাদেশের এক হাজার ইউনিয়নে। এছাড়াও ৯টি পৌরসভায় আজ ভোটগ্রহণ করা হবে। এ ধাপের নির্বাচনে আগে ব্যাপক সংঘাত ও প্রাণহানি হওয়ায় সংঘাত-সহিংসতার শঙ্কা নিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নির্বাচন। আগের ধাপগুলোতে সহিংসতা ও প্রাণহানি হওয়ায় এবার নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর অবস্থানের কথা জানানো হয়েছে। প্রস্তুতিও নেয়া হয়েছে ব্যাপক। তৃতীয় ধাপের এ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন মোট ৫৬৯ প্রার্থী। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ১০০ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৩৭ জন এবং সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৩২ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচনে সহিংসতারোধে আপ্রাণ চেষ্টা করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে আগাম গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও নজরদারি বাড়ানোর তাগিদ দেয়া হয়েছে। অনেকে গ্রেফতার হয়েছে। আরও অনেককে গ্রেফতারের তৎপরতা চলছে। এলাকার মাস্তান, যারা বিশৃঙ্খলা করতে পারে তাদের আগাম গ্রেফতারের জন্য নির্দেশনা দিয়েছি।
আলমডাঙ্গা উপজেলায় ১৩টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহ আজ। এর আগে ১৩ ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৬৩ জন, সংরক্ষিত মহিলা প্রার্থী ১৪২ জন ও মেম্বার প্রার্থী ৪৪৮ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে খাদিমপুর ইউনিয়নের মেম্বার প্রার্থী সাজাপ্রাপ্ত ও গাংনী ইউনিয়নের মেম্বার প্রার্থী অপ্রাপ্ত বয়স হওয়ায় তাদের মনোনয়ন বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। ১১ নভেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ১৩টি ইউনিয়নে মোট ৬৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে। তাদের মধ্যে ভাংবাড়িয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহারকারী হলো দেলোয়ার হোসেন, গাংনী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবু তাহের ও খাদিমপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর রহমান।
এছাড়া সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন ৪৪৭ জন। তাদের মধ্যে ১৫ জন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। গাংনী ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য ৩জন, কুমারী ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য দুজন, খাসকররা ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য একজন, জেহালায় সাধারণ সদস্য দুজন, জামজামিতে সাধারণ সদস্য একজন, কালিদাসপুর সাধারণ সদস্য একজন, হারদী ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য দুজন ও চিৎলা ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য ৩জন তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে মেহেরপুর সদর উপজেলার বুড়িপোতা ও কুতুবপুর ইউনিয়ন এবং গাংনী উপজেলার রায়পুর, ধানখোলা, ষোলটাকা ও কাজীপুরে। ইতোমধ্যে ভোটগ্রহণ কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারী ও পুলিশ এবং আনসার বাহিনীর সদস্য স্ব-স্ব ভোট কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে।
বুড়িপোতা ইউনিয়নের নির্বাচনকে সামনে রেখে বুড়িপোতা ইউনিয়নের ১ জন চেয়ারম্যান, ৩ জন সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য ও ৯জন সাধারণ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার লক্ষ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩জন (এর মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিরুল ইসলাম নৌকার পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন)। এছাড়াও সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য পদে ১০ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বুড়িপোতা ইউনিয়নের নির্বাচনকে ঘিরে ইউনিয়নের ১৭টি গ্রামে সাজ সাজ রব পড়ে গেছে। বুড়িপোতা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মোট ৩০ হাজার ৪০৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ১৫ হাজার ২৪১ জন। মহিলা ভোটার রয়েছেন ১৫ হাজার ১৬৩ জন। বুড়িপোতা ইউনিয়নের মোট ১২টি কেন্দ্রের ৯০টি বুথে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটদান পর্ব চলবে।
এদিকে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ১ জন চেয়ারম্যান, ৩ জন সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য ও ৯ জন সাধারণ সদস্য পদে জিততে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য পদে ৮ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ৩৪ হাজার ৬৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ১৭ হাজার ৩৮ জন। মহিলা ভোটার রয়েছেন ১৭ হাজার ২৯ জন। কুতুবপুর ইউনিয়নের মোট ১৫টি কেন্দ্রে ১০৫টি বুথে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটদান পর্ব চলবে।
ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। মেহেরপুর সদর উপজেলার কুতুবপুর এবং বুড়িপোতা ইউনিয়ন নির্বাচন উপলক্ষে কেন্দ্রগুলোতে ব্যালট বাক্সসহ অন্যান্য নির্বাচনী সরঞ্জামাদি প্রেরণ করা হয়েছে। শনিবার বেলা ১২টার দিক থেকে মেহেরপুর সদর উপজেলার দুটি ইউনিয়নের ২৭টি কেন্দ্রের জন্য ব্যালট বাক্সসহ নির্বাচনী কাজে ব্যবহৃত অন্যান্য সরঞ্জামাদি প্রদান করা হয়। ভোট কেন্দ্রের দায়িত্বে নিয়োজিত প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার এবং পোলিং এজেন্টরা এসব সামগ্রী গ্রহণ করেন এবং নিজ নিজ কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।
বুড়িপোতা এবং কুতুবপুর ইউনিয়নের নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত রিটার্নিং অফিসার ও সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার কবীর হোসেন উপস্থিত থেকে ব্যালট বাক্সসহ নির্বাচনী কাজে ব্যবহৃত অন্যান্য সরঞ্জামাদি প্রদান করেন। আজ রোববার সকালে ব্যালট পেপার প্রদান করা হবে।
এদিকে রোববারের এ ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৪ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পূর্বের মতই প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ সদস্য সহ প্রতি কেন্দ্রে সদস্যের সাথে আনসার ভিডিপি সদস্য মোতায়েন থাকবে। নির্বাচনী এলাকায় ম্যাজিস্ট্রেট এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বরত থাকবেন। এ ছাড়াও শাদাপোশাকে পুলিশ এবং বিজিবি সদস্যরা সার্বক্ষণিক টহলরত থাকবে বলে জানা যায়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More