চুয়াডাঙ্গায় ৫৭টি মামলায় ২৯ হাজার ৮৭০ টাকা জরিমানা

বিধিনিষেধের মধ্যে সড়কে বাড়ছে মানুষ ও গাড়ির চাপ
স্টাফ রিপোর্টার: লকডাউনে কড়াকড়ির মধ্যেও সড়কে দিন দিন মানুষ ও যানবাহনের চলাচল বেড়েছে। গতকালও রাস্তায় মানুষ ও গাড়ি চলাচল দেখা গেছে আগের ছয় দিনের তুলনায় বেশি। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও বিধিনিষেধ মানাতে ছিলেন তৎপর। বাইরে বের হওয়া লোকজন নানা জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছেন। তবু সড়কে মানুষ ছিলো চোখে পড়ার মতো। সড়কে দেখা যায়, হেঁটে, মোটরসাইকেলে, বাইসাইকেলে ও ব্যক্তিগত গাড়িতে করে বাইরে বের হয়েছে মানুষ। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে বাইরে আসা মানুষদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। যারা অকারণে বাইরে বের হচ্ছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রাজধানীতে কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে পুলিশ টহল দিচ্ছে। তারা চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়ি থামিয়ে বাইরে আসার কারণ জানতে চাইছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রমও অব্যাহত আছে। এছাড়া পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবি সদস্যরা বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে কাজ করছেন।
চুয়াডাঙ্গায় শহরে দোকানপাট, রিকশা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, পিকআপ, ইজিবাইক দেদারছে চলাচল করেছে। এতে আরও বেড়ে যাচ্ছে করোনার ঝুঁকি। এছাড়াও কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে জেলার বিভিন্ন সড়কে অভিযান চালাচ্ছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি ও আনসার সদস্যরা। এসময় দোকানপাট, রিকশা, ভ্যান, ইজিবাইক চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চুয়াডাঙ্গা জেলার প্রবেশ পথগুলোতে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। তবুও স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই চলাচল করছে মানুষ। গতকাল বৃহস্পতিবারও বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে বিধিনিষেধ অমান্য করে বাইরে বের হয়েছে মানুষ। লকডাউন কার্যকর করতে পুলিশ, বিজিবি, আনসার ও সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় জেলার বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা। অভিযানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য ও বিধিনিষেধ না মেনে বাইরে বের হওয়ায় জেলায় ৫৭টি মামলায় ৮০ জনকে ২৯ হাজার ৮৭০ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এদিকে, দামুড়হুদায় ১০টি মামলায় ১৩ জনকে ৫ হাজার ৫০ টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ওই অভিযান পরিচালনা করেন দামুড়হুদা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুদীপ্ত কুমার সিংহ। অভিযানে সরকারি আদেশ অমান্য করে লোকজনকে হোটেলে বসিয়ে হোটেলে বসিয়ে খাবার দেয়ায় দর্শনার ‘আল্লাহর দান’ রেস্টুরেন্টের মালিককে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জ্বালানি গ্যাস বেশি দামে বিক্রি করায় ২টি ডিলারকে ১ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। দামুড়হুদার চৌরাস্তায় প্রকাশ্যে ধুমপান করায় একজনকে ৫০ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া দোকানে মাস্ক না পরে আড্ডা দেয়ায় ৫জনকে জরিমানা করা হয়। অভিযানে সহযোগিতা করেন বিজিবির সদস্যরা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More