চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ২০ জন : ২৬ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ

পদ্মবিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট নেয়া হবে ইভিএম পদ্ধতিতে : বাকি ৩টিতে ব্যালটে

রফিকুল ইসলাম : চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২০জন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৪৭জন ও সদস্য পদে ১৩৯জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর পদ্মবিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইভিএম ও বাকি ৩টিতে গোপন ব্যালটে ভোটগ্রহণ করা হবে।
গতকাল মঙ্গলবার প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দকালে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারিক আহমেমদ বলেন, সকল প্রার্থী ও প্রার্থীদের কর্মী সমর্থকদের অবশ্যই নির্বাচনী আচরণ বিধি মানতে হবে। নির্বাচনকে প্রতিযোগিতা তথা প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক করে তুলে উৎসবমুখর পরিবেশ গড়তে হবে। হিংসাসহ যে কোন প্রকারের উগ্রতা পরিলক্ষিত হলে লালকার্ড দেখিয়ে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে বের করে দেয়া হবে। ফলে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিযোগিতা ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে, কোনোভাবেই যেন প্রতিহিংসামূলক আচরণ পরিলক্ষিত না হয়। এদিকে সকলকে আন্তরিকভাবে চেষ্টা করতে হবে। এ সময় রিটার্নিং কর্মকর্তা সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কামরুল হাসান ও রিটার্নিং অফিসার বিকাশ কুমার সাহা উপস্থিত ছিলেন। কামরুল হাসান পদ্মবিলা ও কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে এবং বিকাশ কুমার আলুকদিয়া ও মোমিনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন। চুয়াডাঙ্গা সদরের আলুকদিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে নামের আবুল কালাম আজাদ নৌকা প্রতীক, আলিমুজ্জামান হাতপাখা, আব্দুল মজিদ চশমা প্রতীক, আক্তাউর রহমান মুকুল মোটরসাইকেল প্রতীক, ইসলাম উদ্দীন আনারস প্রতীক ও জুলফিক্কার আলী কলি লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে মাঠে নেমেছেন। সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত আসনে আকুন্দবাড়িয়ার আছিয়া খাতুন বক প্রতীক, আলুকদিয়ার নাসমিা আখতার হেনা হেলিকপ্টার প্রতীক, আলুকদিয়া চকপাড়ার মঞ্জুয়ারা বেগম তালগাছ ও আলুকদিয়ার রোজিনা খাতুন মাইক প্রতীক পেয়েছেন। ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ২ আসনে মনিরামপুর গ্রামের আনোয়ারা খাতুন মাইক ও প্রীতম্বরপুরের পারুলা খাতুন বক প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন ৮জন। এদের মধ্যে দৌলাতদিয়াড় গ্রামের আকলিমা আকতার জিরাফ প্রতীক, দৌলাতদিয়াড়ের কাজলী বেগম বক প্রতীক, একই গ্রামের আছিয়া খাতুন কলম প্রতীক, একই গ্রামের জাহানারা পারভিন তালগাছ, একই গ্রামের রতœা বেগম হেলিকপ্টার, একই গ্রামের রোকিয়া বেগম বই প্রতীক, দৌলাতদিয়াড় চুনুরীপাড়ার সোনিয়া খাতুন সুর্যমূখি ফুল ও হাতিকাটা গ্রামের রওশন আরা খাতুন মাইক প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে আলুকিদয়ার আব্দুস সালাম টিউবওয়েল প্রতীক, আলুকদিয়ার আল বেলাল ফুটবল প্রতীক ও আলুকদিয়ার রফিক হোসেন মোরগ প্রতীক পেয়েছেন। ২নং ওয়ার্ডে দুজন প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে আকুন্দবাড়িয়ার আবুল হাশেম ফুটবল ও একই গ্রামের সহিদুল ইসলাম টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৩নং ওয়ার্ডের ঝোড়াঘাটার আজগার আলী তালা প্রতীক, একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক টিউবওয়েল প্রতীক একই গ্রামের জিয়াউল হক ফুটবল প্রতীক নিয়েছেন। ৪নং ওয়ার্ডে মনিরামপুরের আব্দুর রশিদ মোরগ প্রতীক, একই গ্রামের শফিকুল ইসলাম তালা প্রতীক, মনিরামপুরেরই সাইফুজ্জামান টিউবওয়েল, রাজাপাড়ার হামিম বিশ^াস ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৫নং ওয়ার্ডে প্রীতম্বরপুর গ্রামের ৪জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আব্দুল রাজ্জাক টিউবওয়েল, আব্দুল হালিম তালা প্রতীক, আশরাফ আলী ফুটবল প্রতীক ও শান্তি বিশ^াস মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৬নং ওয়ার্ডের পীরপুর গ্রামের দুজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আব্দুল জব্বার ফুটবল ও বিপুল হোসেন মোরগ প্রতীক নিয়ে মাঠে নেমেছেন। ৭নং ওয়ার্ডের হাতিকাটা গ্রামের ৪জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে কাউছার হোসেন বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক, গোলজার হোসেন মোরগ প্রতীক, তুফান আলী টিউবওয়েল প্রতীক ও মনোয়ার মোল্লা ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। ৮নং ওয়ার্ড দৌলাতদিয়াড়ের ৩জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। এদের মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান হিরা তালা প্রতীক, লিটন হোসেন ফুটবল প্রতীক ও হাবলুর রহমান মোরগ প্রতীক। ৯নং ওয়ার্ডের দৌলাতদিয়াড়েরই এ ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন ৮জন। এদের মধ্যে আবুল কাশেম টিউবওয়েল, জাসলাম হোসেন আপেল প্রতীক, তোশারেফ হোসেন ভ্যানগাড়ি প্রতীক, মামুন উর রশিদ টর্চলাইট প্রতীক, সিহাবুল ইসলাম তালা প্রতীক, সুমন রেজা ফুটবল প্রতীক, সেলিমুজ্জামান মোরগ প্রতীক ও হাসান আলী বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। আলুকদিয়া ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ২২ হাজার ৫শ ১০জন। এর মধ্যে পুরুষ ১১ হাজার ১শ ৩০ জন ও মহিলা ১১ হাজার ৩শ ৮০জন।
মোমিনপুর ইউয়িনন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। এর মধ্যে বোয়ালমারী গ্রামের আব্দুল আল মামুন রতন নৌকা প্রতীক, সরিষাডাঙ্গার গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার ঘোড়া প্রতীক ও বোয়ালমারী গ্রামের একরামুল হক হাতপাখা প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত নারী ১নং আসনে বোয়ালমারীর আইরিন বেগম মাইক প্রতীক, মোমিনপুরের জয়নব বেগম চকলেট সুর্যমুখি ফুল প্রতীক, বোয়ালমারীর ববিতা বেগম কলম প্রতীক, একই গ্রামের সালমা বেগম ময়না বক প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ২নং আসনে আমিরপুরের আলিয়া খাতুন মাইক প্রতীক, সরিষাডাঙ্গা আলেয়া খাতুন বক প্রতীক, আমিরপুরের জামিরন বেগম বই প্রতীক ও সরিষাডাঙ্গা রত্মা আখতার লতা হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৩নং আসনে মাছেরদাইড় আরিছন নেছা মাইক প্রতীক, নীলমণিগঞ্জের মুক্তি মাহামুদা বক প্রতীক নিয়ে, চাঁদপুরের রাহিমা খাতুন ৩ গাছ ও শৈলগাড়ির সোহাগী খাতুন সুর্যমুখি ফুল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদে আব্দুর রাজ্জাক মোরগ প্রতীক, ইকলামুল হক ফুটবল ও বাছের আলী টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ২নং ওয়ার্ডে নূর ইসলাম টিউবওয়েল, বাবুল হোসেন মোরগ প্রতীক, মিজানুর রহমান আপেল প্রতীক ও মোস্তাফিজুর রহমান ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৩নং ওয়ার্ডে তাইফুর আহমেদ ফুটবল ও জাহিদ হাসান মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৪নং ওয়ার্ডে আবু সামা মোরগ প্রতীক ও সাহিনুল ইসলাম টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৫ নম্বর ওয়ার্ডে আলমগীর হোসেন ফুটবল প্রতীক, ইস্রাইল হোসেন বিশ^াস মোরগ প্রতীক ও শামসুল আলম টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৬নং ওয়ার্ডে ৫জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আরিফ হোসেন টিউবওয়েল, লুৎফর রহমান ফুটবল, আব্দুল রাজ্জাক ভ্যানগাড়ি প্রতীক, ইকলাছ ম-ল মোরগ প্রতীক ও জামিল উদ্দীন তালা প্রতীক পেয়েছেন। ৭নং ওয়ার্ডে আমিনুল ইসলাম টিউবওয়েল ও গোলাম রহমান ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৮নং ওয়ার্ডে আশাদুল হক ফুটবল প্রতীক, ইদ্রিস আলী মোরগ প্রতীক, সানোয়ার হোসেন ভ্যানগাড়ি প্রতীক, সুজন আলী টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৯নং ওয়ার্ডে আক্তারুজ্জামান উজ্জ্বল টিউবওয়েল প্রতীক ও মিজানুর রহমান মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোমিনপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১২ হাজার ৪শ ৫৬জন। এর মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ২শ ৪৭ জন ও নারী ৬ হাজার ২শ ৯ জন।
কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আলী আহমেদ হাসানুজ্জামান মানিক নৌকা প্রতীক, জুয়েল রানা চশমা প্রতীক, শাখাওয়াত হোসেন টাইগার আনারস প্রতীক, নজরুল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীক, আজিজুল হক হাত পাখা প্রতীক ও আক্তার হোসেন রনি ঘোড়া প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত নারী ১ আসনে বোয়ালিয়া গ্রামের জেসমিন আক্তার মাইক প্রতীক ও সাহেবনগরের মিলি ইয়াসমিন তালগাছ প্রতীক নিয়েছেন। সংরক্ষিত নারী ২নং ওয়ার্ডে ৫জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে সিন্দুরিয়ার আদুরী খাতুন হেলিকপ্টার প্রতীক, কুতুবপুরের পলি খাতুন বক প্রতীক, মোহাম্মদ জমার মালেকা খাতুন মাইক প্রতীক, কুতুবপুরের লালবানু সুর্যমুখি ফুল প্রতীক, মোহাম্মদ জমার সাগরীকা বেগম তালগাছ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন। সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডে নবীননগরের কল্পনা খাতুন হেলিকপ্টার, হাসনহাটির রিনা পারভীন মাইক প্রতীক, দশমীর মোমেনা খাতুন বক প্রতীক নিয়ে প্রতদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১নং সাধারণ সদস্য পদে আক্তার বিশ^াস তালা প্রতীক, আনারুল ইসলাম বৈদ্যুতিক পাখা, আরিফুল ইসলাম টিউবওয়েল, ভাদু ম-ল মোরগ প্রতীক ও রিজাউল হক ফুটবল প্রতীক। ২নং ওয়ার্ডে জাহিদুল ফুটবল প্রতীক, আমজাদ হোসেন মোরগ প্রতীক, আলাউদ্দীন তালা প্রতীক, ইউনুসর রহমান ভ্যানগাড়ি প্রতীক, জামাত আলী বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক, দিনু মোহাম্মদ টিউবওয়েল প্রতীক পেয়েছেন। ৩নং ওয়ার্ডে মো. আক্তার টিউবওয়েল প্রতীক, বিল্লাল হোসেন তালা প্রতীক, শফিকুল ইসলাম ফুটবল প্রতীক, সোনা মিয়া মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৪নং ওয়ার্ডে নূর ইসলাম ম-ল টিউবওলে প্রতীক, সামসুল আলম মোরগ প্রতীক ও হোসেন আলী ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৫নং ওয়ার্ডে আফাঙ্গীর হোসেন মোরগ প্রতীক, মকলেচুর রহমান টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন। ৬নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আমিরুল ইসলাম বৈদ্যুতিক পাখা, এলাহী মোল্লা ফুটবল প্রতীক, গোলাম রসুল মোরগ প্রতীক, শরিফুল ইসলাম টিউবওয়েল প্রতীক ও সুজন কাজী তালা প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন। ৭নং ওয়ার্ডে নাজমুল হক বৈদ্যুতিক পাখা, মদিন আলী মোরগ প্রতীক, মহাশিন আলী বিশ^াস তালা প্রতীক, শহিদুল ইসলাম টিউবওয়েল প্রতীক, হাফিজুর রহমান ফুটবল প্রতীক ও হাসানুজ্জামান ভ্যান গাড়ী প্রতীক পেয়েছেন। ৮নং ওয়ার্ডে আকবর ম-ল বৈদ্যুতিক পাখা, আবু বাক্কা ফুটবল প্রতীক, আব্দুল হালিম তালা প্রতীক, মো. ইব্রাহিম মোরগ প্রতীক ও ওয়াজির আলী উজির টিউবওয়েল প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৯নং ওয়ার্ডে ৭জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে নাসিম আহমেদ ভ্যানগাড়ী, মিলন আলী মোরগ প্রতীক, জসিম উদ্দীন তালা প্রতীক, ঝন্টু মিয়া বৈদ্যুতিক পাখা, মহর আলী ক্রিকেট ব্যাট, মোমিনুল ইসলাম টিউবওয়েল ও হাসানুজ্জামান ফুটবল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। কুতুবপুর ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ১শ ৭৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৫শ ৬৪ জন, মহিলা ভোটার ১৩ হাজার ৬শ ১২ জন।
পদ্মবিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইভিএম এর মধ্যেমে ভোট গ্রহণ করা হবে। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে মো. আলম নৌকা প্রতীক, আবু তাহের বিশ^াস ঘোড়া প্রতীক, আতিয়ার রহমান মোটরসাইকেল প্রতীক, ওমর ফারুক হাত পাখা প্রতীক ও সেলিম মল্লিক আনারস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। সংরক্ষিত আসনে ১নং আসনে ফেরদৌসি খাতুন মাইক প্রতীক, মুসলিমা খাতুন কলম প্রতীক, রাশিদা খাতুন হেলিকপ্টার, রুবিনা খাতুন সুর্যমুখি ফুল ও শরিফা খাতুন বক প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ডে চায়না খাতুন তালগাছ প্রতীক, জেসমিন আক্তার সুর্যমুখি ফুল, বেবি বেগম বক প্রতীক, হাসিনা খাতুন মাইক প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডে মালেকা বেগম তালগাছ ও লায়লা আরজুমান বানু মাইক প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে কামাল উদ্দিন তালা, বকুল হোসেন ফুটবল, মফিজুল ইসলাম মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ২নং ওয়ার্ডে আব্দুর রউফ বৈদ্যুতিক পাখা, ইয়ার আলী ঘুড়ি প্রতীক, মতিয়ার রহমান তালা প্রতীক, রবিউল আলম টিউবওয়েল প্রতীক, মো. শাহাজান ফুটবল প্রতীক, সাদ্দাম হোসেন মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৩নং ওয়ার্ডে আব্দুল কাদের মোরগ প্রতীক, গোলাম মর্তুজা জোয়ার্দ্দার ফুটবল, শাহা জালাল বৈদ্যুতিক পাখা ও সাজেদুল ম-ল টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৪নং ওয়ার্ডে আসমান আলী মোরগ প্রতীক, ওমর ফারুক সুমন তালা প্রতীক, মুজিবুল হক টিউবওয়েল প্রতীক, মো. রবগুল ফুটবল প্রতীক ও সালাম শেখ বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন। ৫নং ওয়ার্ডে মো. আজিবার ফুটবল, আব্বাস আলী মোরগ প্রতীক, আব্দুল হামিদ টিউবওয়েল প্রতীক ও জাহাঙ্গীর আলী তালা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনি মাঠে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন। ৬নং ওয়ার্ডে ইদ্রিস আলী জোয়ার্দ্দার তালা প্রতীক, ইমদাদুল হক মোরগ প্রতীক, মাহাবুল আলম টিউবওয়েল প্রতীক ও হাসানুর জামান ফুটবল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন। ৭নং ওয়ার্ডে আলমগীর হোসেন ফুটবল প্রতীক, বুল বুল আহমেদ তালা প্রতীক নিয়ে, মিজানুর রহমান ভ্যানগাড়ি প্রতীক, মোবারক হোসেন টিউবওয়েল প্রতীক, হুমায়ন কবীর মোরগ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে নেমেছেন। ৮নং ওয়ার্ডে ২ জন। এর মধ্যে আব্দুল মালেক পেয়েছেন মোরগ প্রতীক, আব্দুল রাজ্জাক নিয়েছেন টিউবওয়েল প্রতীক। ৯নং ওয়ার্ডে আহাদ আলী টিউবওয়েল প্রতীক, ফেরদৌস হোসেন ফুটবল প্রতীক ও শামীম হোসেন মোরগ প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধে রয়েছেন। পদ্মবিলা ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১৬ হাজার ৫শ ৫৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ৩শ ৮ জন ও নারী ভোটার ৮ হাজার ২শ ৫১ জন।
আগামী ১৬ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার উল্লেখিত ৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৮টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More