নায়িকা পরীমণি আটক : তার বাসা যেনো মদের বার 

 

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলা চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা পরীমণির বাসায় প্রায় ৩ ঘণ্টা র‌্যাবের অভিযানের পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর তাকে র‍্যাব -১ কার্যালয়ে নেওয়া হচ্ছে। র‌্যাব জানায়, পরীমনির বাসায় তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদক দ্রব্য ও মদ পাওয়া গেছে। বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেল ৪টার দিকে তার বাসায় অভিযান শুরু করে র‍্যাব-১ ও র‍্যাব সদর দপ্তরের একাধিক টিম।

বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে পরীমনির বাসায় ‘সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের’ ভিত্তিতে অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযান চালানোর পর তাকে সেখান থেকে আটক করা হয়। র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে তার বাসায় অভিযান চালানো হয়, বিস্তারিত পরে জানানো হবে। এর আগে বিকেল ৪টার দিকে ফেসবুক লাইভে এসে পরীমনি বলেন, ‘কারা যেন আমার বাসায় ঢোকার চেষ্টা করছে। কেউ কালো কাপড় পরে আছেন, কেউ রঙিন কাপড় পরে আছেন। এরা কারা ভাই? আমি লাইভ কাটছি না।’ পরীমনি বলেন, ‘পুলিশ হলে তো দরজা খুলেই দেব। কিন্তু তারা তো পরিচয় দিচ্ছে না। মেরে ফেললে সবার সামনে মেরে ফেলে যাক। আমি লাইভ কাটব না। সবাই দেখুক। সবাইকে দেখায় দেব, এরা কী কী করে।’ এ সময় পরীর বাসার দরজা ধাক্কার শব্দ পাওয়া যায়। পরীমনি বলেন, ‘ভাই আপনারা কিছু দেখতেসেন না, কিছু বলতেসেন না। আমি যে কী পরিমাণ সিক। তিন দিন ধরে বিছানা থেকে উঠতে পারছি না। আমার পরিচিতরা কী আসবেন? একটু দেখবেন, এরা কারা। লিটারেলি আমার দরজা ভাঙচুর করতেসে।’ পরীমনি দীর্ঘদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন। কিছুদিন আগে ঢাকার সাভারের বোটক্লাবে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অভিযোগ করে আলোচনায় আসেন তিনি। সে ঘটনায় কয়েকজন গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন, তারা আবার জামিনও পেয়ে গেছেন। এর মধ্যেই আবার একাধিক ক্লাবে পরীমনির ভাঙচুরের অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্টরা। পরীমনিকে আটকের খবর পেয়ে তার বাসার সামনে ভিড় জমিয়েছে হাজারো মানুষ। করোনা পরিস্থিতিতে এমন উৎসুক জনতার ভিড় ঠেকাতে পরীমণির বাসার সামনে মাইকিং করছেন বনানী সোসাইটি। এসময় উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে পুলিশ সদস্যরা বলেন, ‘ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিতে দয়া করে সকলে সর্তক থাকুন। সাংবাদিক ভাইয়েরা ছাড়া অন্য সকল সাধারণ মানুষ দয়া করে এখান থেকে চলে যান।’ আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ ও মাদকসহ আটক করেছে র‌্যাব।তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাবের সদরদপ্তরে নেওয়া হচ্ছে।তার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ রয়েছে সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে সেখানে।  একটি সাদা মাইক্রোবাসে করে র‌্যাব সদরদপ্তরের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More