নিখোঁজের দুইদিন পর লাশ পাওয়া গেলো পুকুরে

মেহেরপুরের তামাক শ্রমিক মুসলিমার অভাবে কাটতো দিন

মেহেরপুর অফিস: নিখোঁজ থাকার দুইদিন পর মেহেরপুর সরকারি কলেজ পুকুর থেকে মুসলিমা (৩৫) নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালের দিকে মুসলিমার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মুসলিমা মেহেরপুর শহরের স্টেডিয়ামপাড়ার জিয়ারুল ইসলামের স্ত্রী এবং একই এলাকার আব্দুল মালেকের মেয়ে।
পুলিশ জানায়, দুই সন্তানের জননী মুসলিমা খাতুন গত ১৭ এপ্রিল প্রতিদিনের ন্যায় মেহেরপুরের একটি তামাক কোম্পানিতে কাজ করার উদ্দেশে বাড়ি থেকে রওনা হন। প্রতিদিন বিকেল বেলা বাড়িতে ফিরলেও ওইদিন বাড়ি না ফেরায় তিনি নিখোঁজ থাকেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালের দিকে সরকারি কলেজের পুকুর পাড়ে কয়েকজন শিশু খেলা করতে গিয়ে মরদেহটি ভাসতে দেখে চিৎকার শুরু করে। খবর পেয়ে মুসলিমার মা আরবি খাতুন ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে শনাক্ত করেন।
মুসলিমার মা আরবি খাতুন জানান, গত পরশুদিন আমার মেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আসে। ওইদিন বিকেল পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করি। এদিন দুপুরের দিকে লোকমুখে শুনে সরকারি কলেজ পুকুর পাড়ে গিয়ে মেয়ের লাশ শনাক্ত করি।
মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, লাশ উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালমর্গে নেয়া হয়। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মরহুমাকে মৃগী রোগী দাবি করায় ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ স্বজনের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন- এ পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More