মনোনয়ন ফরম বিক্রিতে এবার কঠোর আওয়ামী লীগ

যাদের নামের তালিকা পাঠানো হবে তারাই কেবল মনোনয়ন ফরম কিনতে পারবেন
স্টাফ রিপোর্টার: মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রিতে এবার কঠোর হয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। প্রার্থীর ছড়াছড়ি ঠেকাতে এবং ঢালাওভাবে দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রিতে এবার কড়াকড়ি আরোপ করেছে দলটি। দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমূল থেকে আসা তালিকায় নাম না থাকলে অন্য কাউকেই দলের মনোনয়ন ফরম দেয়া হচ্ছে না। সম্প্রতি পাঁচটি শূন্য হওয়া সংসদীয় আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীর ছড়াছড়ি, পদ-পদবীবিহীন, ন্যূনতম জনভিত্তি নেই এমন অখ্যাত অসংখ্য ব্যক্তির দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনে প্রার্থিতার ঘোষণার ঘটনার পর এমন কড়াকড়ি আরোপ করেছে আওয়ামী লীগ। সম্প্রতি পাঁচটি সংসদীয় আসনে রেকর্ড সংখ্যক ১৪১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী দলীয় ফরম কিনে জমা দেন। এতে দলের নীতিনির্ধারকদের রীতিমতো বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। বিষয়টি দলীয় হাইকমান্ডের দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের দলীয় ফরম বিক্রিতে কড়াকড়িভাবে দলীয় গঠনতন্ত্র অনুসরণ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে দলটির একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। ধানম-িতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, যে কেউ চাইলেই জেলা, উপজেলা কিংবা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হচ্ছে না। স্থানীয় পর্যায় থেকে আসা তালিকায় যাদের নাম আছে তাদেরই মনোনয়ন ফরম দেয়া হচ্ছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে তিন জেলা পরিষদ, ৯ উপজেলা এবং ৬১ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে আওয়ামী লীগ, যা আগামী ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। দলের দফতর সেল সূত্রে জানা গেছে, এবার এসব জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহ যাতে গণহারে না হয়, সেজন্য দলের গঠনতন্ত্রের বাধ্যবাদকতা অনুসরণ করা হচ্ছে। প্রার্থীর ছড়াছড়ি হলে শুধু দলীয় কোন্দলই বৃদ্ধি নয়, নির্বাচনের মাঠেও তার প্রভাব পড়ে। এই বাস্তবতা থেকেই মনোনয়ন ফরম বিক্রির ক্ষেত্রে ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। দলীয় গঠনতন্ত্রের বিধান অনুযায়ী, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ফরম কিনতে জেলা-উপজেলা-ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের স্বাক্ষরিত রেজুলেশনে প্রার্থীর নাম থাকতে হবে। রেজুলেশনে নাম ছাড়া মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হচ্ছে না। অর্থাৎ জেলা-উপজেলা এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ থেকে যেসব মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা পাঠানো হবে তারাই কেবল মনোনয়ন ফরম কিনতে পারবেন। আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে অন্তত তিন জনের নামের তালিকা কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের কাছে পাঠানো যাবে। উপজেলা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও এটা অনুসরণ করা হচ্ছে। দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা গ্রহণের কাজে নিয়োজিত একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কারা দলের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন তা দলের গঠনতন্ত্রে উল্লেখ আছে। গঠনতন্ত্র অনুসরণ করেই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হচ্ছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More