মেহেরপুর পৌরসভা ও চার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আজ

মেহেরপুর অফিস: আজ ১৫ জুন মেহেরপুর পৌরসভা এবং মেহেরপুর সদর উপজেলার নবসৃষ্ট দুটি ইউনিয়নসহ মোট ৪টি ইউনিয়নের নির্বাচন। ইতোমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। এই প্রথম মেহেরপুর পৌরসভার ভোট ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এছাড়া প্রতিটি ইউনিয়নের ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে ইভিএম পদ্ধতিতে। প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সংখ্যক আনসার ভিডিপি ও পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আইনশৃংখলা রক্ষায় প্রতিটি কেন্দ্রে একজন ম্যাজিস্ট্রেট এবং র‌্যাবের পাশাপাশি বিজিবি টহলে থাকছে। মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়েছে মেহেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে প্রতিটি ভোট কেন্দ্র সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকছে। ইতোমধ্যে ভোট কেন্দ্রগুলো সিসি ক্যামেরার আওতায় নেয়া হয়েছে। আজ সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ করা হবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট কেন্দ্রগুলো ও তার আশেপাশে টানানো ও সাটানো হয়েছে প্রার্থীদের ছবি ও প্রতীক সম্বলিত পোস্টার। প্রতীক্ষার পালা শেষ করতে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের নির্বাচিত করবেন। আর জয়-পরাজয়ের মধ্যদিয়ে প্রার্থীরা তাদের যোগ্যতা নিরুপণ করবেন।
মেহেরপুর পৌরসভা: মোট ভোটার ৩৪ হাজার ৭৮৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটর ১৬ হাজার ৭৬৯ জন ও মহিলা ভোটর ১৮ হাজার ১৫ জন। ভোটারা পৌরসভার ২০ কেন্দ্রে ১২২টি বুথের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। মেয়র পদের প্রার্থী হলেন ২ জন। একজন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত তরুণ প্রার্থী জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাবেক মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন (নৌকা) ও অপরজন স্বতন্ত্র প্রার্থী বয়সে প্রবীণ সাবেক মেয়র আলহাজ মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু (নারিকেল গাছ)। মেহেরপুর পৌরসভার উন্নয়নে ভোটাররা তাদের পছন্দের যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন। এদিকে পৌরসভার কাউন্সিলন পদে ১নং ওয়ার্ডে ৫জন, ২নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৭নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৮নং ওয়ার্ডে ৮ জন ও ৯নং ওয়ার্ডে ৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া পৌরসভার সংরক্ষিত (মহিলা) কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ৮ জন এবং ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে ৩ জন।
পিরোজপুর ইউপি: পিরোজপুর ইউপির চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৩ জন। তারা হলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস (নৌকা), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম (আনারস) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু বক্কর সিদ্দিক হাতপাখা (প্রতীক)। এ ইউনিয়নের মোট ভোটার ১৯ হাজার ৩৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯ হাজার ৩৫৩ জন ও মহিলা ভোটর ৯ হাজার ৬৮৪ জন। মোট ১০টি কেন্দ্রে ৬২টি বুথে ভোট গ্রহণ চলবে। এ নির্বাচনে ভোটারা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। এদিকে ওয়ার্ড সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ২নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৭নং ওয়ার্ডে ৭ জন, ৮নং ওয়ার্ডে ২ জন ও ৯নং ওয়ার্ডে ৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ৬ জন এবং ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে ৫ জন।
আমঝুপি ইউপি: আমঝুপি ইউপির চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ জন। যার মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মেহেরপুর সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বোরহান উদ্দিন আহমেদ চুন্নু (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী মডেল আসিফ আজিম (আনারস), শফিকুল ইসলাম (ঘোড়া) ও সাইফুল ইসলাম (চশমা)। এছাড়া সংরক্ষিত (মহিলা) সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ৫ জন এবং ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে ৩ জন এবং ওয়ার্ড সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে ৯ জন, ২নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ৮ জন, ৫নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৭নং ওয়ার্ডে ৭ জন, ৮ নং ওয়ার্ডে ৪ জন ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আমঝুপি ইউনিয়নের মোট ভোটার ২৮ হাজার ৪০৯ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৪ হাজার ২৩০ জন ও মহিলা ভোটার ১৪ হাজার ১৭৯ জন্। এ ইউনিয়নের মোট ১৫ কেন্দ্রে ৮৯টি বুথে ভোট গ্রহণ চলবে। ভোটারা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে পছন্দের প্রার্থীকে জয়যুক্ত করবেন।
বারাদী ইউনিয়ন পরিষদ (নবসৃষ্ট): পিরোজপুর ইউনিয়ন ভেঙে নবসৃষ্ট বারাদী ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নে মোট ভোটর ১৯ হাজার ১৫০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটর ৯ হাজার ৬০৪ জন ও মহিলা ভোটার ৯ হাজার ৫৪৬ জন। মোট ৯ টি কেন্দ্রের ৬১ টি বুথে ভোট গ্রহণ চলবে। নবসৃষ্ট বারাদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম (নৌকা), বিদ্রোহী প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা সালেহ আল আজিজ টনিক বিশ^াস (আনারস), স্বতন্ত্র প্রার্থী আরমান আলী (ঘোড়া), হাসিবুল হাসান বাবু (চশমা), নুরু উস সাফা (মশাল) ও নুর ইসলাম (রজনীগন্ধা) লড়ছেন। এ ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য পদে ১ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ২নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৩ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৪ নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৬ নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৭ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৮ নং ওয়ার্ডে ৭ জন ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সংরক্ষিত (মহিলা) ওয়ার্ড সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ৪ জন এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৪ জন।
শ্যামপুর ইউনিয়ন (নবসৃষ্ট): এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আক্তার হোসেন (অটো রিকশা), স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মতিয়ার রহমান (চশমা), স্বতন্ত্র প্রার্থী খিলাফত আলী (লাঙ্গল), আবুল হাসেম (ঘোড়া), কামরুল হাসান (আনারস), আব্দুল বারী (ঢোল) ও নয়ন হাবিব (মোটরসাইকেল) প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় আগেই নিজের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সদর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব বিশ^াস। এদিকে এ ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ২নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৪ নং ওয়ার্ডে ৮ জন, ৫ নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৬ নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৭ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৮ নং ওয়ার্ডে ৭ জন ও ৯নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া পৌরসভার সংরক্ষিত (মহিলা) ওয়ার্ড সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ৩ জন এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৫ জন। এ ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১৭ হাজার ২১৪ জন। যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ৬০৬ জন ও মহিলা ভোটার সংখ্যা ৮ হাজার ৬০৮ জন। এ ইউনিয়নের মোট ৯টি কেন্দ্রের ৫৪ টি বুথে ভোট ভোটাররা ভোট প্রদান করবেন। নবসৃষ্ট এ ইউনিয়নের প্রথম চেয়ারম্যান হিসেবে কার গলায় মালা উঠবে তা দেখার বিষয়।
এদিকে মেহেরপুর পৌরসভা সহ সদর উপজেলার ৪ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নির্বাচনের দায়িত্ব¡রত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং পুলিশ-বিজেপি র‌্যাবের যৌথ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেলের দিকে এ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ এর নেতৃত্বে মহড়াটি মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু করে মেহেরপুর পৌরসভাসহ সদর উপজেলার শ্যামপুর, আমঝুপি, বারাদী এবং পিরোজপুর ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মহড়ায় নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, বিজিবি ও র‌্যাবের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More