শীত বৃষ্টিতে নাকাল চুয়াডাঙ্গা

স্টাফ রিপোর্টার:

মাঘের শীত-বৃষ্টিতে স্থবির হয়ে পড়েছে চুয়াডাঙ্গার জনজীবন। গতকাল রাত থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিতে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। সকাল থেকে হচ্ছে টানা বৃষ্টি। বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অবশ্য বৃষ্টি কিছুটা বিরাম দিয়েছে।

আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় ১ দশমিক ৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে জেলার আবহাওয়া অফিস। একই সময় জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বলে জানান চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামাদুল হক।  তিনি জানান, আজ সারাদিন এ অবস্থা অব্যাহত থাকতে পারে। রাতের দিকে বৃষ্টি কমে আবহাওয়া স্বাভাবিক হতে পারে। তবে বৃষ্টি কেটে তাপমাত্রা কমে আবারও শৈত্যপ্রবাহ আসতে পারে। একপর্যায়ে আবহাওয়া স্বাভাবিক হয়ে কেটে যেতে পারে শীত।

এদিকে, সকাল থেকেই মেঘাছন্ন রয়েছে আকাশ। ছুটির দিন শীতের সকালে বৃষ্টি হওয়ায় সড়কে তুলনামূলক কম ছিল মানুষের চলাফেরা। একটানা গুড়িগুড়ি বৃষ্টির কারণে রাস্তায় কমে গেছে মানুষ চলাচল। খুব প্রয়োজন ছাড়া  ঘর থেকে বের হচ্ছেনা কেউই। প্রায় জনশূণ্য হয়ে পড়েছে জেলার হাট-বাজারগুলো। বাড়ি থেকে কাজের জন্য বের হওয়া অনেকেই আটকা পড়েন রাস্তায়। তাদের অনেকেই আশ্রয় নেন রাস্তার পাশের যাত্রী ছাউনি ও দোকানে।

গত কয়েকদিনের তুলনায় তাপমাত্রা বাড়লেও ঘন কুয়াশা ও হিমেল হাওয়ায় বেড়েছে দুর্ভোগ। এতে কাজে যেতে পারছেন না খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষেরা।

চুয়াডাঙ্গা শহরের শহীদ হাসান চত্বরে কথা হয় ভ‍্যানচালক শমসের আলীর সাথে। তিনি বলেন, খুব সকালে বাড়ি থেকে যখন বের হই তখন বৃষ্টি ছিল না। বাজারে এসেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে। বৃষ্টির কারণে আমরা ভাড়া মারতে পারছিনা। আকাশে মেঘ আছে, বারবার মেঘ ডাকছে। বৃষ্টির মধ্যে ভ‍্যানে উঠছেন না যাত্রীরা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More