১ হাজার ফুট পতাকা নিয়ে আনন্দ র‌্যালি : যাদু প্রদর্শনী

আর্জেন্টিনা জিতলে ১০ ছাগল খাওয়ানোর ঘোষণা সেই ‘১৫ মেসি ভক্ত দামুড়হুদা’র

জহির রায়হান সোহাগ/হাবিবুর রহমান:

আগামী ২০ নভেম্বর কাতারে শুরু হবে ফুটবল বিশ্বকাপ। আর এই বিশ্বকাপ নিয়ে ইতোমধ্যে আর্জেন্টাইন ভক্তদের মধ্যে শুরু হয়েছে বাড়তি উন্মাদনা। বিশ্বকাপ উল্লাসে মেতে উঠেছে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা দাসপাড়ার ‘১৫ মেসি ভক্ত দামুড়হুদা’ নামে সংগঠনের সদস্যরা। তাদের আয়োজনে এক হাজার ফুট দৈর্ঘ্যরে আর্জেন্টিনার পতাকা নিয়ে বর্ণাঢ্য আনান্দ র‌্যালি করেছে ভক্ত-সমর্থকরা। এবারের বিশ্বকাপে প্রিয় ফুটবল মহাতারকা লিওনেল মেসির দল আর্জেন্টিনা চ্যাম্পিয়ন হলে ১০টি ছাগল জবাই করে ভুড়িভোজের আয়োজন করবে ভক্তরা।

গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে দামুড়হুদা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ১ হাজার ফুট দৈর্ঘ্যরে আর্জেন্টিনার পতাকা নিয়ে জড়ো হয় ‘১৫ মেসি ভক্ত দামুড়হুদা’ সংগঠনের সদস্যরা। তাদের সাথে যোগ দেয় চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়াসহ আশপাশের এলাকার শত শত আর্জেন্টাইন ভক্তরা। স্টেডিয়ামের চারিদিক আর্জেন্টিনার এই দীর্ঘ পতাকা নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন ভক্তরা। সেখান থেকে একটি আনন্দ র‌্যালি শুরু করে তারা। র‌্যালিটি দামুড়হুদা উপজেলা শহর প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। তাদের এই আনান্দ র‌্যালি ২২ নভেম্বর পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তারা। পরে স্থানীয় যাদু শিল্পী মোহাম্মদ আলী যাদু প্রদর্শন করে ভক্তদের উৎসাহিত করেন।

সংগঠনটির মুখপাত্র শুভ দাস বলেন, আর্জেন্টিনা আমার প্রিয় দল, মেসি আমার প্রিয় খেলোয়াড়। প্রিয় দলকে ভালোবেসে সংগঠনের পক্ষ থেকে এক হাজার ফুট দৈর্ঘ্যরে এই পতাকাটি বানানো হয়েছে। পতাকা ও যাদু প্রদর্শনীতে আমাদের খরচ হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার টাকা। আগামী ২২ নভেম্বর আর্জেন্টিনা দলের খেলা। তাদের পছন্দের দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে এই আনন্দ র‌্যালি ও যাদু প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়। এবার মেসির বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা হয়েছে। তাই এ বিশ্বকাপটি মেসিভক্তদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি আরও বলেন, এই আনান্দ র‌্যালি ২২ নভেম্বর পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। আর্জেন্টিনা যদি এই বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় তাহলে ১০টি ছাগল জবাই করে ভক্তদের নিয়ে ভুড়িভোজের আয়োজন করা হবে।

শুভ বলেন, গত বছর মেসির জন্মদিনে ৩৪ পাউন্ড কেক কাটার কথা ছিলো। কিন্তু লকডাউনের কারণে তা করা হয়নি। আমাদের একটি ফান্ড আছে। সেখানে এলাকার বিত্তবানরা অনুদান দেন। সেই ফান্ডের টাকার সঙ্গে নিজেরা কিছু টাকা মিলিয়ে কিনেছিলাম আটা ও মাস্ক। ৩৫০টি পরিবারের মাঝে প্রতি কেজি ১ টাকায় এ আটা বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে এই ভক্তরাই মেসির জন্মদিন পালন করতে গিয়ে জরিমানা দিয়েছিলেন। দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ওল্ড টাউন কফি হাউসে তারা যখন হইচই করে জন্মদিন উদযাপন করছিলেন তখন ওই এলাকায় ছিলো জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি টহল দল। ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৫ জনকে ১০০ টাকা করে জরিমানা করে। একই সঙ্গে দোকান খোলা রাখার জন্য দোকানদারকে করা হয় ৬ হাজার টাকা জরিমানা। বিষয়টি নিয়ে দেশি ও বিদেশি বিভিন্ন গণমাধ্যমে হয়েছিলো নানা রকম সমালোচনা।

গত বছর আর্জেন্টিনার অধিনায়ক, বিশ্ব বরেণ্য ফুটবলার লিওনেল মেসির জন্মদিন ভিন্নভাবে পালন করেছিল ‘১৫ মেসি ভক্ত দামুড়হুদা’ নামে সংগঠনটি। মহামারী করোনার মধ্যে অসহায় ও দুস্থদের মাঝে আটা ও মাস্ক বিতরণ করেছিলো সংগঠনের সদস্যরা। এই আটা নিতে যেনো কারো মাঝে সংকোচ কাজ না করে সে কারণে প্রতি কেজি আটার বিনিময়ে নেয়া হয়েছে ১ টাকা। এরপর সামাজিক দূরত্ব মেনে কেটেছেন মেসির জন্মদিনের কেক। চলতি বছর দামুড়হুদা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ৩৫ পাউন্ডের কেক কেটে মেসির জন্মদিন উদযাপন করেছেন তারা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More