করোনা : চুয়াডাঙ্গায় ৮ মেহেরপুরে নতুন আক্রান্ত ৭  

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালকসহ নতুন করে ৮ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৩৭ জনে। চুয়াডাঙ্গার আক্রান্ত ৮ জনের মধ্যে দামুড়হুদার দশমীপাড়ায় গৃহবধূর পর এবার তার স্বামী ও ননদের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। মেহেরপুরে এক মৎস্য অফিসারের পরিবারের পাঁচজনসহ শহরে গতকাল বৃহস্পতিবার আরও সাতজন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৭ জনে।
চুয়াডাঙ্গায় পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালকসহ নতুন ৮ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ৪৫টি নমুনার ফলাফল ৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৩৭ জনে। চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার পৌনে ১০টায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে ৪৫টি নমুনার ফলাফল আসে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন জেলার সদর উপজেলায় ৩ জন ও দামুড়হুদা উপজেলায় ৫ জন। এর মধ্যে ৬ জন পুরুষ ও দুজন নারী। বয়স ১৩ থেকে ৫০ বছর। নতুন আক্রান্তের তালিকায় রয়েছেন ৮ জনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইনে কর্মরত ২৬ বছর বয়সী এক নায়েক, চুয়াডাঙ্গা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালক, চুয়াডাঙ্গা বিদ্যুত অফিসে কর্মরত একজন, দামুড়হুদা দশমীপাড়ার এক নারী ও এক পুরুষ, দক্ষিণ চাদপুর গ্রামের ১৩ বছর বয়সী এক কিশোর ও এক নারী, দর্শনা বাসস্ট্যান্ডপাড়ার একজন। উল্লেখ্য, জেলায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ২০ ও হোম আইসোলেশনে ৬৯ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। গতকাল ৫ জনসহ সুস্থ হয়েছেন মোট ১৪৫ জন। এ পর্যন্ত মৃত ব্যক্তির নমুনায় ৩ জনের পজেটিভ এসেছে।
দামুড়হুদা ব্যুরো জানিয়েছে, দামুড়হুদা দশমীপাড়ায় করোনা পজেটিভ গৃহবধূর পর এবার তার স্বামী ও ননদের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ১ জুন করোনা পজেটিভ গৃহবধূর স্বামী আব্দুল হামিদ, দু’সন্তান ও ননদ রিজিয়া খাতুনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রিপোর্ট পাওয়া যায়। রিপোর্টে ওই গৃহবধূর স্বামী ও ননদের দেহে করোনার উপস্থিতি মিললেও দু’সন্তানের দেহে মেলেনি করোনার উপস্থিতি। রিপোর্ট পাওয়ার পরপরই তাদেরকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়ার কথা বলা হয়। পরিবারের আপত্তির কারণে ননদ রিজিয়াকে রেখে শুধুমাত্র হামিদকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। তাদের বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করে লাল পতাকা টাঙানো হয়েছে এবং পরিবারের লোকজনকে বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, দামুড়হুদা উপজেলায় বুধবার মোট ২১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ২১ জনের মধ্যে ৫ জনের দেহে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। বাকি ৩ জন হলেন দর্শনা দক্ষিনচাঁদপুরের শাহানারা খাতুন, আবু সাইম এবং দর্শনা বাসস্ট্যান্ডপাড়ার হৃদয়। এ পর্যন্ত মোট করোনা পজেটিভ রোগীর সংখ্যা ৬৯ জন। এরমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩৬ জন। মারা গেছেন দুজন (দর্শনা) প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছেন ১৯ জন, হোম আইসোলেশনে আছেন ৬ জন এবং হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ১১২ জন। তিনি সকলকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হবেন না। নিয়মিত সাবান পানি দিয়ে দুইহাত ভালো করে ধৌত করুন, জনসমাগম এড়িয়ে চলুন। সার্বক্ষনিক মাস্ক পরিধান করুন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুর শহরের নীলমণিগঞ্জ সিনেমাহলপাড়ায় এক মৎস্য অফিসারের পরিবারের পাঁচজনসহ মেহেরপুর শহরে গতকাল বৃহস্পতিবার আরও সাতজন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৭ জনে। আর মোট সুস্থ হয়েছেন ৩৩ জন। আক্রান্ত মৎস্য অফিসার চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় কর্মরত। তিনি শহরের নীলমণিগঞ্জ সিনেমাহলপাড়ার বাসায় সপরিবারে আইসোলেশনে রয়েছেন। তার স্ত্রী, ভাই ও দুই সন্তানসহ ৫ জন কোভিড-১৯ পজেটিভ। একইসাথে তার এক প্রতিবেশীও আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেহেরপুর সিভিল সার্জন।
সিভিল সার্জন অফিসসূত্রে জানা গেছে, আক্রান্ত অপরজন হচ্ছেন শহরের ম-লপাড়ার বাসিন্দা ৪০ বছর বয়সী এক নারী। বেশ কয়েকদিন আগে আক্রান্ত এক নারীর সংস্পর্শে তিনি করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হয়েছেন বলে জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০টা পূর্ব ২৪ ঘণ্টায় জেলার ১৯টি নমুনা পরীক্ষায় ওই সাতজন কোভিড-১৯ পজেটিভ হন।
প্রসঙ্গত, গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত জেলায় মোট আক্রান্ত ৮৭ জনের মধ্যে সদরে ৪৭, গাংনীতে ৩৩ ও মুজিবনগরে ৭ জন। এর মধ্যে মোট সুস্থ হয়েছেন ২৭ জন আর মৃত্যু ৫ জনের। স্স্থুদের মধ্যে সদরে ১৪, গাংনীতে ১০ ও মুজিবনগরে ৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে অন্যত্র প্রেরণ করা হয়েছে ৮জনকে। তাই জেলায় বর্তমানে পজেটিভ রোগীর সংখ্যা ৪০ জন বলে সির্ভিল সার্জনসূত্রে জানা গেছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More