চুয়াডাঙ্গায় রয়েল পরিবহনের একটি কোচের ধাক্কায় ৬জন নিহত

সরোজগঞ্জ থেকে জিয়াউর রহমান জিয়া : চুয়াডাঙ্গার সরোজগঞ্জে শনিবার ভোরে রয়েল পরিবহনের একটি নৈশকোচের ধাক্কায় দুটি ভ্যান, আলমসাধু আরোহী ও মোটরসাইকেল চালকসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের ৬ জনেরই বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের বিভিন্ন গ্রামে। এদের মধ্যে রয়েছেন খাড়াগোদার একজন প্রাণী সম্পদ চিকিৎসক।
ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে স্থানীয়রা বলেছেন, ভোর আনুমানিক সাড়ে ৫টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে মেহেরপুর গামী রয়েল পরিবহনের একটি কোচ ঝিনাইদহ- চুয়াডাঙ্গা সড়কের সরোজগঞ্জ বাজারে পৌছে পেছন থেকে একটি আলমসাধুকে ধাক্কা দেয়। শ্যালোইঞ্জিন চালিত আলমসাধুতে থাকা চালক আরোহীরা আছড়ে পড়ে সড়কে। এরপরই সামনে ছিলো ধানের পাতু বহন করা একটি ভ্যান। ভ্যানচালককে ধাক্কা দিয়ে সড়কে আছড়ে ফেলে। এপরই সামনে থাকা মোটরসাইকেল চালককে ধাক্কা মারে। সামনে পডড়ে আরও একটি ভ্যান। দুটি ভ্যান, আলমসাধু ও মোটরসাইকেলে ধাকা চালক আরোহীদের সকলেই রক্তাক্ত জখম হন। ঘটনাস্থলেই কয়েকজন নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে মারা যান আরও একজন।
নিহতদের মধ্যে পল্লি এলাকার প্রাণী সম্পদ চিকিৎসক মিলন ডাক্তারের বাড়ি খাড়াগোদা গ্রামে। তিনি মোটরসাইকেলে ছিলেন। তিতুদহের রাজু, মোহাম্মদ ও শরিফ নামের তিন জন, কালূ নামের একজনের বাড়ি কোথায় তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। নিহত ষষ্ঠি হালদারের বাড়ি জেলা সদরের বসু ভা-ারদহে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
1 টি মন্তব্য
  1. আজিজ বলেছেন

    খুব মর্মাহত ঘটনা

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More