শীতের তীব্রতা কমলেও বয়ে যাচ্ছে কনকনে উত্তরে হাওয়া

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস
স্টাফ রিপোর্টার: কুড়িগ্রামের রাজারহাট থেকে সিলেটের শ্রীমঙ্গল। এরপর চুয়াডাঙ্গা। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড এখন দক্ষিণ-পশ্চিমের সীমান্তবর্তী এ শহরে। গতকাল মঙ্গলবার এখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের অন্যান্য এলাকায় শীতের তীব্রতায় তেমন বিশেষ হেরফের হয়নি। শৈত্যপ্রবাহ চলছেই। তবে রাতের তাপমাত্রা আর কমবে না, বরং একটু করে বাড়তে থাকবে বলেই আবহাওয়ার পূর্বাভাস।
একদিকে শৈত্যপ্রবাহ, অন্যদিকে ঘন কুয়াশায় আকাশ ঢাকা। অনেক এলাকাতেই সূর্য মধ্য-আকাশে উঠে গেলেও রোদের কিরণ কুয়াশার পর্দা সরিয়ে শুকনো ধুলার ধরণিতে এসে পৌঁছায় না। তার ওপর বয়ে যাচ্ছে কনকনে উত্তরে হাওয়া। এই ত্রিমুখী পরাক্রমে জনজীবনে কাঁপুনি উঠেছে। বহু এলাকায় মন্থর হয়ে গেছে প্রাত্যহিক জীবনযাত্রার গতিছন্দ। তবে রাজধানীতে শীতের প্রভাব কমেছে। গত সপ্তাহ থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেটের কিছু অঞ্চল ছাড়া প্রায় সারা দেশের ওপর দিয়েই তীব্র ও মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। আবহাওয়া বিভাগের আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক জানিয়েছেন, চলতি মৌসুমে এটাই সবচেয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলসহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের প্রভাবে এ শৈত্যপ্রবাহ দেখা দিয়েছে। গত ২৭ জানুয়ারি থেকে দেশের কয়েকটি এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়। এরপর ২৯ তারিখ পর্যন্ত প্রতিদিনই এর তীব্রতা ও পরিধি বাড়তে থাকে। ৩০ জানুয়ারিতে এসে তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছিলো। আবার এক দিন পরই ৩১ জানুয়ারি থেকে তাপমাত্রা কমে শৈত্যপ্রবাহটি আরও তীব্র হয়ে ওঠে। সাধারণত কোনো এলাকার তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে সেখানে শৈত্যপ্রবাহ চলছে বলে ধরা হয়। তবে মঙ্গলবার আবার সারা দেশেই তাপমাত্রা গত সোমবার চেয়ে গড়ে ১ থেকে ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বেড়েছে। আজ বুধবার থেকে শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতা আরও কমতে থাকবে। ক্রমান্বয়ে একেক এলাকা শৈত্যপ্রবাহের আওতা থেকে বেরিয়ে আসবে।
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় ৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে সেখানে গতকালের চেয়ে তাপমাত্রা দশমিক ৬ ডিগ্রি বেড়েছে। গতকাল সেখানে তাপমাত্রা ছিলো ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি। আর দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো শ্রীমঙ্গলে ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি। তার আগে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার এই রেকর্ড ছিলো কুড়িগ্রামের রাজারহাটে। গতকাল মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড হয়েছে টেকনাফে ২৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি। ঢাকাতেও তাপমাত্রা বেড়ে শৈত্যপ্রবাহের আওতামুক্ত হয়েছে। এখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২২ দশমিক ৪ ও সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৭। সোমবার সর্বোচ্চ ছিলো ২২ দশমিক ১ ডিগ্রি ও সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি। আজ বুধবার সারা দেশেই তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে। রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল বিভাগসহ টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, সন্দ্বীপ, সীতাকু-, রাঙামাটি, কুমিল্লা, হাতিয়া, শ্রীমঙ্গল, সাতক্ষীরা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের কিছু কিছু এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। গতকাল বুধবারের মধ্যে অনেক এলাকাতেই শীতের তীব্রতা কমে আসবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More