কোভিড-১৯ আক্রান্তদের মধ্যে চুয়াডাঙ্গার আরও একজনের মৃত্যু

জেলায় ৬ হাজার ৩শ’ ৭ জনের মধ্যে ৪ দিনে মোট ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৫৩৩ জন

১৩ জনের একজনেরও করোনা পজিটিভ হয়নি : পরীক্ষার জন্য নতুন ১৮ জনের নমুনা সংগ্রহ
স্টাফ রিপোর্টার: নোভেল করোনা ভাইরাসে চুয়াডাঙ্গার আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। দর্শনা আনোয়ারপুরের বৃদ্ধ আব্দুল কাদের কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে গতকালই দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। অপরদিকে গতকাল ১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে একজনেরও কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়নি। গতকাল আরও ১৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে প্রেরণ করেছে চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ। অপরদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রুবাইত বিন আজাদ সুস্তির ও তার মা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। আজ বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে মা ছেলে দুজনই জেলা শহরের রেলপাড়াস্থ নিজ বাড়িতে ফিরতে পারেন।
চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্যবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল পর্যন্ত জেলায় মোট ১ হাজার ৫শ’ ৩৩ জন কোভিড-১৯ প্রতিরোধক ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এর মধ্যে গতকালই ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৬শ’ ৬০ জন। সদর হাসপাতাল থেকে ১শ’ ৪১ জন, পুলিশ হাসপাতাল থেকে ১১২ জন, বিজিবি হাসপাতাল থেকে ৬৮ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ৫১ জন, দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগরসহ ৮১ জন জীবননগর উপজেলার ২শ’ ৮ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলে জানা গেছে। এদিকে গতকাল কোভিড-১৯ আক্রান্তদের মধ্যে আব্দুল কাদের নামের একজন বয়স্ক মানুষ মারা গেছেন। তিনি দর্শনা আনোয়ারপুরের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি সর্দি কাশি জ¦রসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। হাসপাতালের হলুদ জোনে ভর্তি করে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে প্রেরণ করা হয়। তার কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়। এরপরও তাকে তার নিকটজনেরা তাকে বাড়িতে ফিরিয়ে নেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে আবারও চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি মারা যান। এছাড়া হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা চুয়াডাঙ্গা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রুবাইত আজাদ বিন সুস্তির ও তার মায়ের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট গতকাল নেগেটিভ হয়েছে। ফলে আজ বৃহস্পতিবার এরা দুজনই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারেন। মা ছেলে সুস্থ হওয়ায় মহান সৃষ্টিকর্তার প্রতি শুকরিয়া জানিয়েছেন সুস্তির পিতা চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আজাদ মালিতা। সুস্তির ও তার মা হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরলে হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা শূণ্য হবে। অপরদিকে আক্রান্তদের মধ্যে মাত্র একজনই বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন। গতকাল নতুন ১৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে প্রেরণ করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত: করোনা ভাইরাসে এ পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গার মোট ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৪৪ জন চুয়াডাঙ্গাতে বাকি ৪ জনের মৃত্যু হয় ঢাকায়। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬শ ৬৪ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ১ হাজার ৬শ ১২ জন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গায় মোট ১ হাজার ৫শ ৩৩ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। রেজিস্ট্রেশন করেছেন মোট ৬ হাজার ৩শ ৭২ জন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More