অপারেশন করেও বের করা যায়নি ট্রাকচালক সাচ্চুর শরীরে বিদ্ধ গুলি

অস্ত্র মামলায় গ্রেফতার চুয়াডাঙ্গার নূরনগর পুকুরপাড়ার বাকের রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার: গুলিবিদ্ধ ট্রাকচালক চুয়াডাঙ্গার সাচ্চুর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হলেও গুলি বের করা সম্ভব হয়নি। তবে তিনি আশঙ্কামুক্ত। পরবর্তিতে আবারও অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার পেটের ভেতর থেকে গুলি বের করা হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। শনিবার রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাচ্চুর অপারেশন করা হয়।
এদিকে, প্রকাশ্যে ট্রাকচালককে গুলি করার ঘটনায় গুলি ও ম্যাগজিনসহ গ্রেফতারকৃত নূরনগর পুকুরপাড়ার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অস্ত্র আইনের মামলায় আদালতে সোপর্দ করে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারক একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা বাসটার্মিনাল এলাকায় ট্রাকচালক পৌর এলাকার মাঝেরপাড়ার মৃত আরেফিন শেখের ছেলে (বর্তমানে দৌলাতদিয়াড় বঙ্গজপাড়ায় বসবাসরত) সাচ্চুকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে নূরনগর এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী শাকের-বাকেরসহ কয়েক যুবক। ঘটনার পরপরই পার্শ্ববর্তী ভুট্টাক্ষেত থেকে ৬ রাউন্ড গুলি ও ম্যাগজিনসহ মৃত সুসাহেবের ছেলে বাকেরকে আটক করে পুলিশ। রাতেই সদর থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত বাকের ও তার ভাই পলাতক থাকা শাকেরসহ অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন।
গতকাল রোববার পুলিশ ওই মামলায় বাকেরকে আদালতে সোপর্দ করে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করে। একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক। আজ সোমবার বাকেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশি হেফাজতে নেয়া হতে পারে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আশিকুল ইসলাম বলেন, ট্রাকচালকের ওপর গুলি ছোঁড়া পিস্তল উদ্ধার ও প্রধান অভিযুক্ত শাকেরকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে। খুব দ্রুত তাকে গ্রেফতার করে আইনের আনা হবে। এছাড়াও গ্রেফতারকৃত বাকেরের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া যাবে। তবে, ট্রাকচালক সাচ্চুর পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনো মামলা করা হয়নি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More