মেহেরপুর জেলায় কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ

২৪ ঘন্টায়  নতুন ২৩ জন করোনা আক্রান্ত্: বাড়ছে উৎকন্ঠা

মেহেরপুর অফিস ঃ মেহেরপুরে লাফিয়ে লাফিয়ে করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাড়ছে উদ্বেগ আর উৎকন্ঠা ।গত ২৪ ঘন্টায় মেহেরপুর জেলায় ২৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাই আজ মঙ্গলবার থেকে মেহেরপুর জেলায় কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন। একই সঙ্গে মেহেরপুর থেকে রাজশাহীগামী বিআরটিসি’র বাস চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। আগামী দুই সপ্তাহ এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে।গতকাল সোমবার দুপুরে মেহেরপুর জেলা করোনা নিয়্ন্ত্রণ কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। নতুন আক্রান্ত ২৩ জনের মধ্যে মেহেরপুর সদর উপজেলায় ১৩ জন, গাংনী উপজেলার ৫ জন ও মুজিবনগর উপজেলা ৫ জন রয়েছেন।এ নিয়ে বর্তমানে জেলায় মোট করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগির সংখ্যা ১৯৭ জন। গতকাল সোমবার রাত ১০ টার দিকে মেহেরপুরের সিভিল সার্জন ডা. মোঃ নাসির উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। মেহেরপুর সিভিল সার্জন অফিস আরো জানায়, ল্যাব থেকে ৫৬ টি (এন্টিজেন-৫২, জিন এক্সপার্ট-৪)নমুনা পরীক্ষা শেষে সবগুলি রিপোর্ট মেহেরপুরে এসে পৌঁছে। এরমধ্যে ২৩ জন করোনা রোগি চিহ্নিত হয়েছে। মেহেরপুর জেলায় এ পর্যন্ত মোট ৭ হাজার ৮৮৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে মোট এক হাজার ২২৯ জন করোনা রোগি চিহ্নিত হয়। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ১৯৭ জন করোনা রোগির মধ্যে সদর উপজেলায় ৫০ জন, গাংনী উপজেলায় ৮৯ জন ও মুজিবনগর উপজেলায় ৫৮ জন রয়েছেন। এছাড়া ট্রান্সফার্ড হয়েছেন ১০১ জন। এদের মধ্যে সদর উপজেলার ৬১ জন, গাংনী উপজেলার ১৬ জন ও মুজিবনগর উপজেলার ২৪ জন রয়েছেন। এ ছাড়া এ পর্যন্ত ৯২৫ জন সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ৫২৫ জন, গাংনী উপজেলায ২৯৬ জন ও মুজিবনগর উপজেলায় ১০৪ জন রয়েছেন। এছাড়া এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২৭ জন। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ১০ জন, গাংনী উপজেলার ১১ জন ও মুজিবনগর উপজেলার ৬ জন রয়েছেন। গতকাল দুপুরে মেহেরপুর জেলা করোনা নিয়্ন্ত্রণ কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খাঁন জানান, জেলার গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ি ও হিন্দা গ্রাম এবং মুজিবনগর উপজেলার আনন্দবাস গ্রামে করোনা সংক্রমণ অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পেয়েছে। তা নিয়ন্ত্রণের জন্য ওই তিন গ্রামে দুই সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে- প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরের দিন সকাল ১০টা পর্যন্ত ওষুধসহ জরুরি প্রয়োজনীয় ছাড়া সব দোকানপাট বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি বন্ধ থাকবে মেহেরপুর থেকে রাজশাহীগামী বিআরটিস‘র বাস চলাচল। জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির জুম মিটিংয়ে জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খাঁন, পুলিশ সুপার এস.এম মুরাদ আলী, সিভিল সার্জন ডা. নাসির উদ্দীন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম ও মেহেরপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফজলুল হক মন্টুসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More