চুয়াডাঙ্গায় সুস্থতার ছাড়পত্র দেয়ার পরও করোনা পজেটিভ !

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা আক্রান্তদের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল থেকে সুস্থতার ছাড়পত্র দিলেও পরবর্তিতে কোভিড-১৯ পজেটিভ হচ্ছে। ইতোমধ্যেই তিনজনের ক্ষেত্রে এমনটি হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রশ্ন তুলে বলা হয়েছে, হাসপাতাল থেকে সুস্থতার ছাড়পত্র দেয়ার একসপ্তাহের মধ্যে করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ হয় কীভাবে?
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার হারদীর এক করোনা রোগীর ক্ষেত্রে যেমন এমনটি হয়েছে, তেমনই সদর উপজেলার দৌলাতদিয়াড়ের দুই বাসিন্দার ক্ষেত্রেও ঘটেছে অভিন্ন ঘটনা। অভিযোগকারীরা বলেছেন, করোনা উপসর্গ দেখা দিলে পরীক্ষার জন্য নিয়ম মেনেই নমুনা দেয়া হয়। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট যেমন পজেটিভ আসে, তেমনই অসুস্থতার ধরণ দেখে চিকিৎসাও দেয়া হয়। চিকিৎসার এক পর্যায়ে বলা হয়, রোগী সুস্থ। অথচ রোগীদের মধ্যে অসুস্থতার সকল লক্ষণই বিদ্যমান। সপ্তাহখানেকের মাথায় আবারও যখন নমুনা পরীক্ষা করানো হয় তখন দেখা গেছে রোগীর কোভিড-১৯ তথা করোনা ভাইরাসজনিত রোগ পজেটিভ। তবে কি সুস্থ না হলেও ১৪ দিনের মাথায় সুস্থতার ছাড়পত্র ধরিয়ে দেয়া হচ্ছে? এ প্রশ্নের জবাব জানতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারের সাথে যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ রোগীদের সুস্থ করতে নির্দেশনা মেনেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। দু-একজনের ক্ষেত্রে এমনটি হলে হতেও পারে। তাছাড়া কোভিড-১৯ পজেটিভদের চিকিৎসা দেয়ার পর পুনঃ পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ না এলে তো আর সুস্থ বলা হচ্ছে না। সুস্থ বলার পরও যাদের পুনঃপরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে তাদের বিষয় পদস্থ কর্মকর্তাদের অবহিত করে অবশ্যই পরবর্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করবো।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More