আলমডাঙ্গা জাহাপুরে একুশে পদকপ্রাপ্ত বাউল সাধক খোদা বকস শাহের ২দিনের স্মরণোৎসব শুরু

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার জাহাপুরে বরেণ্য বাউল সাধক একুশে পদকপ্রাপ্ত খোদা বকস শাহের ৩১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ২দিনব্যাপী স্মরণোৎসব শুরু হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১০টায় খোদা বকশ শাহের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি, বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও বাউল গানের মধ্যদিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। অনুষ্ঠানে বাংলা একাডেমির সহকারী পরিচালক ড. সাইমন জাকারিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় শিল্পী আব্দুল লতিফ শাহ ও রেখা বিশ্বাস এবং তার ভক্তরা গান পরিবেশন করেন। সন্ধ্যায় প্রদ্বীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্যদিয়ে সাধুসঙ্গের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।
২দিনের এই উৎসবকে ঘিরে খোদা বকস শাহের সমাধি চত্বরে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা বাউলদের সমাগম ঘটেছে, বসেছে গ্রামীণ মেলা। আজ শুক্রবার দুদিনের এই উৎসব শেষ হবে।
খোদা বকস শাহ স্মৃতি সংসদ ও তার অগণিত ভক্ত অনুরাগীরা প্রতিবছরই তার জন্ম ও মৃত্যুদিন পালন করে আসছে। তিনি জীবদ্দশায় ৯৫০টি গান রচনা করেন।
বাংলা একাডেমির সহকারী পরিচালক ড. সাইমন জাকারিয়া বলেন, খোদা বকস শাহের অবদান যেভাবে জাগ্রত রাখার দরকার তা আমরা পারিনি। তার ভক্তরা সাধুসঙ্গে এসেছেন। বাল্যসেবা, পূণ্যসেবা ও তার গান পরিবেশিত হবে। তিনি ১ হাজার মতো গান লিখেছেন। লালনের শিষ্যদের মধ্যে খোদা বকস শাহের মতো এতো গান আর কেউ লিখতে পারেনি। তিনি একুশে পদক ও বাংলা একাডেমির ফেলোশিপ পেয়েছিলেন। তার গানগুলো গ্রন্থ আকারে প্রকাশ করা হবে। খোদা বকস শাহের গানের চর্চা হচ্ছে। তাকে আরও পুরস্কৃত করা দরকার।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More