চুয়াডাঙ্গায় যুগসন্ধীর আয়োজনে জাতীয় কবির জন্মবার্ষিকী উদযাপন

এগিয়ে চলার প্রত্যয়ে চার কবিকে দেয়া হলো সম্মাননা ক্রেস্ট
স্টাফ রিপোর্টার: ‘জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার জন্য যুগসন্ধি কাজ করে যাচ্ছে। আমরা শিগগরিই তাকে নিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপনের মতো কাজ কবি-সাহিত্যিকদের মাঝে তুলে ধরব। কাজী নজরুল ইসলামের লেখা বিভিন্ন ভাষায় যাতে অনুদিত হয় সেদিকেও আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।’ কথাগুলো বলেছেন যুগসন্ধি নজরুল গবেষণা আকাদেমির মহাপরিচালক মোহাম্মদ তৌহিদ হোসেন। তিনি গতকাল শুক্রবার যুগসন্ধি নজরুল গবেষণা আকাদেমি কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। চুয়াডাঙ্গায় জাতীয় কবির ১২২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন, কবি সম্মাননা ও কবিতা উৎসব-২০২১ অনুষ্ঠিত হয় চুয়াডাঙ্গা জেলা শিল্পকলা একাডেমির মুক্ত মঞ্চে। সকাল ১০টায় আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রথমেই অতিথিদের হাতে ফুল ও গলায় উত্তরীয় পরিয়ে দেয়া হয়। পরে লেখালেখির অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ চার কবিকে সাহিত্য সম্মাননা প্রদান করা হয়। কবিদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট, গলায় উত্তীয় ও ফুলের মালা এবং হাতে গোলাপ ফুল তুলে দেয়া হয়। সম্মাননা পাওয়া চার কবি হলেন সব্যসাচী লেখক যশোরের দীপঙ্কর দাস রতন, ছড়ার কারিগর ছড়াসম্রাট চুয়াডাঙ্গার আহাদ আলী মোল্লা, ছন্দ কবিতা ও মাত্রাবৃত্তে পটুয়া কবি আব্দুস সালাম দৌলতী এবং কবি, সুরকার ও গীতিকার হেলাল হোসেন জোয়ার্দ্দার। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দ্রোহের কবি যুগসন্ধির নির্বাহী পরিচালক অমিতাভ মীর। অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য উপস্থাপন করেন কবি গবেষক বাচিক ও সঙ্গীত শিল্পী যশোর সিটি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ড. সবুজ শামীম আহসান, চুয়াডাঙ্গা সনো সেন্টারের অর্থোপেডিক ও ট্রমা সার্জন সহ.অধ্যাপক সাহিত্যিক ডা. আবু বকর সিদ্দিক, চুয়াডাঙ্গা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক কবি দীপক সাহা, চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের সহসভাপতি অ্যাড. বজলুর রহমান, দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন। মধ্যাহ্ন ভোজের পর কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কবি আকলিমা খাতুন। শেষে গুণী শিল্পীদের সমন্বয়ে সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More