আলমডাঙ্গার জামজামি বাজারে একইরাতে ৩টি দোকানে চুরি : সিসি ক্যামেরায় ফুটেজে চোর শনাক্ত

জামজামি প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার জামজামি বাজারে একইরাতে ৩টি দোকানে টিনের চালাকেটে মালামালসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকা চুরি করে পালিয়েছে। দোকানীরা নিজেরাই পালাক্রমে প্রতিরাতে বাজারে পাহারা দিয়েও চুরি ঠেকাতে পারছে না। এতে অনেক ব্যবসায়ী পুজি হারিয়ে পথে বসেছে। তবে এবার চুরির ঘটনা বাজারের সাহা ট্রেডার্সের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে। যা চোর চিহ্নিতকরণ ও গ্রেফতারে সহায়ক হবে বলে স্থানীয়দের অনেকে জানিয়েছেন। ফাঁড়ি পুলিশের আইসি এসআই আব্দুল হাকিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ।

সিসি ক্যামেরায় ধরাপড়া দৃশ্য

জানা গেছে, আলমডাঙ্গার জামজামি বাজারের বকুল হোসেনের বকুল গার্মেন্টসে গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে চোরচক্র হানা দেয়। এ সময় চোরচক্র ধারালো অস্ত্র দিয়ে দোকানের টিনের চালা কেটে ভেতরে ঢোকে। ক্যাশবাক্সের ড্রয়ার ভেঙে নগদ ১৪ হাজার টাকা ও শার্ট-প্যান্ট ও অন্যান্য পোষাক নিয়ে সটকে পড়ে। বণিক সমিতির সাবেক সেক্রেটারি আবু তাহেরের হার্ডওয়ার দোকানে ঢুকে চোরেরা নগদ ১০ হাজার টাকা ও মেশিন টুলস্্ সামগ্রী চুরি করে। একইভাবে বিশ্বজিত সাহার সাহা ট্রেডার্সে একই কায়দায় ঢুকে ড্রয়ারের তাল ভেঙে ২টাকার নোটের বান্ডিল ৫ টাকার কয়েন ছাড়াও কসমেটিকস সামগ্রীসহ অন্যান্য মালামাল এবং ৫০ হাজার টাকা চুরি করে পালিয়ে যায়। গতকাল সকালে দোকান খুলে ভেতরে ঢুকে চমকে ওঠেন তিনি। চিৎকার করে প্রতিবেশী দোকানিদের ডেকে বলতে থাকেন, চোর তার সর্বনাশ করেছে। চোর শনাক্তে দোকানী বিশ্বজিত সাহা নিজ দোকানে বসানো সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, চোর ১০টা ১৩ মিনিটে  ভেতরে ঢুকে ক্যাশের ড্রয়ার ভেঙে টাকা নিচ্ছে। এ সময় টাকাগুলো ছুঁড়ে দিচ্ছে টিনের চালার ওপর বসা অপর এক সহযোগির হাতে। ১০টা ১৩ মিনিট থেকে ১০টা ৫৬ মিনিট অবধি চোর তার কাজ সেরে চলে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ চোর ধরতে তৎপরতা শুরু করেছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More