আলমডাঙ্গায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে জিপু চৌধুরী

তৃণমূল পর্যায়ের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরায় দলের মূল শক্তি
আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার পৌর ৬নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ও সাবেক চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু। ১৩ ডিসেম্বর বিকেলে আলমডাঙ্গা পৌর ৬নং ওয়ার্ডের গোবিন্দপুর পূর্বপাড়ায় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার। এ সরকারের আমলে যত উন্নয়ন হয়েছে; তা আর কোন সরকারের আমলে হয়নি। তৃণমূল পর্যায়ের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কর্মীরাই দলের মূলশক্তি। সকল স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীদের ঐক্য হয়ে দলের জন্য কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি আরও বলেন, গত ২৮ নভেম্বর আলমডাঙ্গায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডাউকি ইউনিয়নে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্মআহব্বায়ক নাজমুল হোসাইন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। নির্বাচনের কয়েকদিন পর বিজয়ী চেয়ারম্যান তার লোকজন নিয়ে নাজমুলের ওপর অতর্কিত হামলা তাকে মারধর করে মারাত্মক জখম করেছে। নাজমুল বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধান আছে। নাজমুলের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, আর কোন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীর ওপর হামলা করলে তা আমরা মেনে নেবো না। সম্মেলনে পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক আলম হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্মআহ্বায়ক মতিয়ার রহমান মতি, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তরিকুল ইসলাম টুকুল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জানিফ আহমেদ, দামুড়হুদা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক বাবু। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহব্বায়ক শরিফুল ইসলাম রিফাত। পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্মআহ্বায়ক আল ইমরানের উপস্থাপনায় উপস্থিত জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য মিলন, বিপ্লব, ফরিদ, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সজল, হারদী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ, সহসভাপতি আব্দুল্লাহ, যুগ্মসম্পাদক সাইফুল, জেহালা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা আসাদুল ইসলাম, রহিদুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা সাগর, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মুন্না, ইমরান, মিলন, উৎপল, চন্দন, নজরুল, কুমারী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মশিউর প্রমুখ। সম্মেলনে ৬নং ওয়ার্ডে মাসুম পারভেজকে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক মহিনুর রহমান স্বাধীন ও লাল্টু আহমেদকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More