চুয়াডাঙ্গার যদুপুরে মৃত্যুর খবর পেয়ে কবর খনন : বেঁচে যাওয়ায় কলাগাছের দাফন

বেগমপুর প্রতিনিধি: রাখে আল্লাহ মারে কে। এ কথাটি শতভাগ প্রমাণিত হলো চুয়াডাঙ্গার যদুপুর গ্রামের রিপনের ক্ষেত্রে। মৃত্যুর খবর পেয়ে কবর খোড়া শেষে জানতে পারে রিপন মরেনি বেঁচে আছে। ঢাকার সরকারি কর্মচারী হাসপাতালে আইসিইউতে ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি করেছে।
গ্রামসূত্রে জানাগেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের যুদুপুর গ্রামের মৃত সায়েদ মিয়ার ছেলে রিপন বিএডিসির ট্রাকচালক গত ২৪ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয়ে জীবননগর হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি দেখা দিলে পরিবারের লোজকজন ঢাকায় নিয়ে যায়। সেখানে রিপনকে সরকারি কর্মচারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। বৃহস্পতিবার রাত ১০ টা ২২ মিনিটের দিকে ঢাকা থেকে নিকটজন খবর পাঠায় রিপন মারা গেছে গ্রামে কবর খুঁড়ে রাখ। সকালে লাশ গ্রামে পৌঁছুবে। এ খবর পেয়ে পরিবারজুড়ে যেমন পড়ে যায় কান্নার রোল সেই সাথে সকালে মৃত ব্যাক্তির লাশের জন্য বাড়ির পাশে খোড়া হয় কবর। পুনরায় সকালের দিকে একই জায়গা থেকে খবর আসে রিপন বেঁচে আছে এবং ওই হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি আছে। এখবর গ্রামে পৌঁছার পর গ্রামের লোকজন কবরে কলাগাছ দিয়ে আক্ষরিক দাফন সম্পন্ন করেন। মৃত এবং বেঁচে থাকার এমন খবর নিয়ে যদুপুর গ্রামে চাঞ্চলের সৃষ্টি করেছে। রিপন বিএডিসির ট্রাকচালক হিসেবে ঢাকাতে চাকরিরত আছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More