ভ্রাম্যমাণ আদালতে চুক্তিবদ্ধ ওয়ার্কশপ মালিকের জরিমানা

দামুড়হুদায় ভূমিহীন-গৃহহীনদের ঘর নির্মাণে অনিয়ম

দামুড়হুদা অফিস: দামুড়হুদায় প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প (ক) শ্রেণির আওতায় ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য নির্মাণকৃত বসতবাড়ি নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগে অভিযুক্ত চুক্তিবদ্ধ ওয়ার্কশপ মালিককে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জানাগেছে, ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য দামুড়হুদা উপজেলার ৩২টি পরিবারের বসতবাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন এই কাজটি সার্বক্ষণিক তদারকি করছে। ঘরের জানালা-দরজা তৈরি করার জন্য দামুড়হুদা বাজারের ডালিম এসএস ইঞ্জিনিয়ারিং কর্ণারের স্বত্বাধিকারী ডালিম শেখের কাছে গুনগতমানের জানালা-দরজা তৈরির কাজ চুক্তিবদ্ধ হয়। ডালিম প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে চুক্তি মোতাবেক মালামাল দেয়ার কথা ছিলো তা না দিয়ে প্রতিটি দরজায় ৩ কেজি করে মালামাল কম দিয়ে দরজা-জানালার কাজ শেষ করে। গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে  উপজেলা নির্বাহী অফিসার দামুড়হুদার হঠাৎপাড়ায় নির্মাণকৃত ঘর পরিদর্শন করতে গেলে ঘরের প্রতিটি দরজায় ৩ কেজি করে মালামাল ফাঁকি দেয়ার অভিযোগ পান এবং সেখানে চুক্তিবদ্ধ ওয়ার্কশপের মালিক ডালিমকে দোষী সাব্যস্ত করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ সালের ৪৬ ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিলারা রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আশরাফ আলী। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা কাজে সহযোগিতা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসের পেশকার জিহন আলী, দামুড়হুদা মডেল থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দ প্রমুখ। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান দৈনিক মাথাভাঙ্গাকে জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প (ক) শ্রেণির আওতায় ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য নির্মাণকৃত ঘরের গুনগত মান যাতে ভালো হয় সেজন্য তিনি নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন এবং এই প্রকল্পের ঘরে কোনোরকম অনিয়ম সহ্য করা হবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প (ক) শ্রেণির ঘর নির্মাণ কাজে যদি কেউ অনিয়ম বা দুর্নীতি করে সে যে কেউ হোক না কেনো তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More