মহেশপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে ঝলসে দিল পাষণ্ড স্বামী

মহেশপুর প্রতিনিধি: মহেশপুরে যৌতুকের দাবীতে গরম পানি দিয়ে স্ত্রীকে ঝলসে দিলেন এক পাষন্ড স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার রাখালভোগা গ্রামে। রাখালভোগা গ্রামের মৃত বদর উদ্দিনের ছেলে মফিজ উদ্দিন (৪৫) পার্শ্ববর্তী জীবননগর থানার রায়পুর গ্রামের আবু তাহেরের মেয়ে নাজমা খাতুনকে (৩৩) ৪ বছর পূর্বে তার প্রথম স্বামীর কাছ থেকে বিভিন্ন মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করে। বিয়ের পর মফিজ নিজের স্বার্থে তার স্ত্রী নাজমাকে বিদেশ পাঠিয়ে দেন। বিদেশে অনেক নির্যাতন সহ্য করার পর একটি মানবাধিকার সংগঠনের সহযোগিতায় মেয়েটি দেশে ফিরে আসে এবং ওই মানবাধিকার সংগঠনটি নাজমার ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তার বাড়ি সংলগ্ন একটি মুদি দোকান করে দেয়। বর্তমানে ওই দোকানের মাধ্যমে নাজমার সংসার চলে।
ভিকটিম নাজমা খাতুন জানায়, সম্প্রতি তার স্বামী মফিজ যৌতুকের জন্য তাকে বিভিন্ন ধরনের শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করছে। ইতোমধ্যে কয়েকবার তাকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। গত মঙ্গলবার রাতে নাজমার স্বামী একটি ইজিবাইক যৌতুক হিসাবে দাবি করলে নাজমা অপারগতা প্রকাশ করায় নাজমার দোকানের চা তৈরীর কেতলির গরম পানি ঢেলে তার সারা শরীর ঝলসে দেয়। প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে তাকে মহেশপুর হাসপাতালে ভর্তি করে। ভিকটিম বৃহস্পতিবার সকালে মহেশপুর থানায় এজাহার দায়ের করেছে।
মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More