যুবলীগ ও ছাত্রলীগের তরুণরা করছেন করোনা রোগীর সেবা

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় অব্যাহত আছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের তরুণদের দ্বারা করোনা আক্রান্ত রোগীর সেবা। শ্বাসকষ্টে ভোগা করোনা রোগীদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়া হচ্ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার। রাত কিংবা দিন, যখনই হোক মুর্মূষু অবস্থায় থাকা করোনা রোগীকে বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দেয়ার এ উদ্যোগ প্রশংসিত হচ্ছে সর্বমহলে। গতকাল শুক্রবারও চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার গুলশানপাড়া, মাঝেরপাড়াসহ বিভিন্ন স্থানের বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে শ্বাসকষ্টে ভোগা রোগীকে বিনামূল্যে দেয়া হয়েছে অক্সিজেন সিলিন্ডার।
জানা গেছে, জেলা যুবলীগের সদস্য ও সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শরীফ হোসেন দুদুর সার্বিক সহযোগিতায় ছাত্রলীগের একদল তরুণ চুয়াডাঙ্গায় এ মহৎ কাজ করছেন। গত বুধবার এ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর ছাত্রলীগের তরুণরা এগিয়ে নিচ্ছে উদ্যোমতার সাথে। ইতোমধ্যে বৃহস্পতিবার ৫জনকে এবং গতকাল শুক্রবার ৩জনকে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়েছে। হেল্প নম্বরে কল দেয়ার সাথে সাথে জেলা ছাত্রলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জাকির হুছাইন জ্যাকির নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একদলকর্মী করোনা রোগীর বাড়িতে বাড়িতে এ অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকরামুল হক, সাবেক পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইনামুল হাসান বুলবুল, জেলা যুবলীগ নেতা মো. জাহিদ হোসেন, আব্দুল হান্নান, আব্দুল মান্নান মুন্না, চুয়াডাঙ্গা সদর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন রেজা, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নঈম পারভেজ সজল, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের নেতা কানন আহমেদ, ইমরোজ হোসেন, আব্দুল খালেক, রাজন আহমেদ, সানজিদ আহমেদ, ফাহিম আহমেদ, রাজু আহমেদ, সজল প্রমুখ।
এ উদ্যোগকে বাস্তবায়নকারী ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মধ্যে আপাতত অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ করা হচ্ছে। সদর হাসপাতালে বাইরে থেকে অক্সিজেন দেয়া নিষেধ থাকায় সদর হাসপাতাল বাদে পৌরসভার মধ্যকার যে কোনো প্রান্ত থেকে কল করলেই অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌছে দেয়া হচ্ছে। আমাদের কাছে, একজন রোগীর জীবন অনেক দামি। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা থেমে থাকে না। বাংলাদেশ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ সবসময় মানুষের পাশে ছিলো, মানুষের পাশে থাকবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More